১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দিনাজপুরে গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ

বিডিনিউজ ॥ দিনাজপুরের নবাবগঞ্জে এক গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। মঞ্জিলা আক্তার (২০) নামের ওই তরুণীকে দগ্ধ অবস্থায় বৃহস্পতিবার রাতে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে শুক্রবার ভোরে তার মৃত্যু হয় বলে নবাবগঞ্জ থানার ওসি আমিরুল ইসলাম জানান। মঞ্জিলা নবাবগঞ্জের সড়াইপাড়া গ্রামের মঞ্জুর রহমানের স্ত্রী। পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ‘মোবাইলে কথা বলা নিয়ে’ মঞ্জুর ও তার স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। পরে রাতে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় মঞ্জিলাকে হাসপাতালে নেয়া হয়। মঞ্জিলার বাবা মাহবুবুর রহমানের অভিযোগ, মঞ্জুরই তার মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা করেছে। তিনি বলেন, তাদের সংসারে প্রায়ই অশান্তি হতো। স্বামীই তাকে পুড়িয়ে মেরেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওসি বলেন, দীর্ঘ সময় স্ত্রীকে ফোনে কথা বলতে দেখে মঞ্জুর আপত্তি করেন। এ নিয়ে তাদের ঝগড়া হয়। পরে মঞ্জিলা আরেক ঘরে গিয়ে দরজা আটকে নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেয় বলে মঞ্জুরের পরিবার দাবি করেছে। এ বিষয়ে কথা বলার জন্য মঞ্জুরের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। মঞ্জিলার লাশ রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি।