২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চট্টগ্রামে প্রথম জমকালো ওয়েডিং ফেয়ার, দর্শনার্থীর ঢল

হাসান নাসির, চট্টগ্রাম অফিস ॥ ওয়েডিং ফেয়ার। মাত্র একদিনের জমকালো এক আয়োজন। ব্যতিক্রমী এ মেলায় হাজারো উৎসুক দর্শনার্থী। বন্দরনগরী চট্টগ্রামে এ ধরনের প্রদর্শনী এবারই প্রথম। সঙ্গত কারণেই কৌতূহল থাকা অত্যন্ত স্বাভাবিক। হয়েছেও তাই। চট্টগ্রামের হোটেল রেডিসন ব্লু অভিমুখে যেন জনস্রোত। শুধু তারুণ্যই নয়, সকল বয়সী মানুষের স্রোত মিলেছে এই মোহনায়।

চট্টগ্রামের পাঁচ তারকা মানের হোটেল রেডিসন ব্লু’র মেজবান হলে ‘গ্র্যান্ড ওয়েডিং ফেয়ার’ শুরু হয় শুক্রবার সকাল ১০টায়। চলে সন্ধ্যা পর্যন্ত। পরিবেশটা দুপুর পর্যন্ত কোলাহলমুখর না হয়ে উঠলেও বিকেলটা ছিল অন্য রকম। দর্শনার্থীদের চাপ এত বেশি যে, শেষ পর্যন্ত প্রবেশে নিয়ন্ত্রণারোপ করতে হয়। সামাল দিতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় শৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিতদের। প্রথম আয়োজনেই এমন বিপুল সাড়ায় উদ্বেলিত আয়োজকরা। এতটা জমে উঠবে তেমনটি আশা করেননি তারা। আয়োজক প্রতিষ্ঠানটির নাম শাহজাহান ওয়েডিং প্লানার্স এ্যান্ড ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

আয়োজন ব্যতিক্রমধর্মী। তার ওপর ভেন্যু যে ‘হোটেল রেডিসন’। ফলে আকর্ষণ হয়েছে দ্বিগুণ। বিলাস বহুল এ হোটেলে প্রবেশাধিকার অনেকটাই সংরক্ষিত। তাই মেলা দর্শনের পাশাপাশি সেলফি তোলার মহোৎসব। দৃষ্টিনন্দন সাজে সাজানো হয় রেডিসনের মেজবান হল। মেলা শেষ না হওয়া পর্যন্ত সুপরিসর এই হল রুমটি ছিল দর্শনার্থীতে ঠাসা।

হোটেল রেডিসনের এক্সিকিউটিভ (এমআইসিই সেলস) আরেফিন আজম রোহান জানান, চট্টগ্রামে ওয়েডিং ফেয়ার নামে আর কোন মেলা ইতোপূর্বে অনুষ্ঠিত হয়নি। প্রথম আয়োজনে যে সাড়া মিলেছে তা ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভবিষ্যতেও এমন আয়োজনে উৎসাহিত করবে। তিনি জানান, দিনব্যাপী এ ফেয়ারে অংশ নিয়েছে ১১টি প্রতিষ্ঠান। এর মধ্যে রয়েছে জড়োয়া হাউস, পোশাক, শাড়ি, ফার্নিচার, বিউটি পার্লার এবং বিয়ের সাজসজ্জা ও আনুষ্ঠানিতার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠান। এ সকল প্রতিষ্ঠানের ছিল নানা ধরনের আকর্ষণীয় অফার। দর্শনার্থীরা জেনে নেন তাদের প্রয়োজনীয় তথ্য।

ওয়েডিং ফেয়ারে হোটেল রেডিসন ব্লু’র পক্ষ থেকে দেয়া হয়েছে চারটি আকর্ষণীয় অফার। এগুলো হচ্ছে ব্লু সিলভার, ব্লু গোল্ড, ব্লু সেফায়ার ও ব্লু ডায়মন্ড। বুকিং দেয়ার সময়সীমা ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত। এই অফার গ্রহণকারী প্রতিজনের জন্য রেডিসনের পক্ষ থেকে থাকছে ওয়েডিং কেক, হানিমুন স্যুটে একরাত থাকায় ১০ শতাংশ ডিসকাউন্টসহ বিভিন্ন সুবিধা। আগ্রহীরা বিস্তারিত জেনে নেন মেলায় স্থাপিত তথ্য কেন্দ্র থেকে।

হোটেল রেডিসনে ওয়েডিং ফেয়ারে অংশগ্রহণকারী বিউটি পার্লার ‘বিউটি বাফেট’ থেকে তুলে ধরা হয়, তাদের বিভিন্ন ধরনের প্রি-ওয়েডিং সার্ভিস। আগ্রহীদের আয় বিবেচনায় তাদের রয়েছে বিভিন্ন মূল্যের প্যাকেজ। একইভাবে জড়োয়া হাউস, আসবাবপত্র, পোশাক এবং বিয়ের সাজসজ্জার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকেও আকর্ষণীয় অফার রয়েছে। একই ছাদের নিচে একই হলে এতগুলো প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহণ দর্শনার্থীদের দিয়েছে বাড়তি সুবিধা।

শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন। কর্মক্ষেত্র এবং শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। ওয়েডিং ফেয়ারের জন্য এ দিনটি বেছে নেয়ায় এতে দর্শনার্থীর ঢল নামে। শুধুমাত্র প্রাপ্ত বয়স্করাই যে কর্মব্যস্ত তা নয়, লেখাপড়ার বোঝা যেভাবে বেড়েছে তাতে শিক্ষার্থীদেরও অবসর খুবই সময়। মেলার পাশাপাশি রেডিসনে কিছু সময় কাটাবার সুযোগও বটে। ফলে জমজমাট রূপ লাভ করে চট্টগ্রামে আয়োজিত প্রথম ওয়েডিং ফেয়ার।