২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজধানীতে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ, সড়ক দুর্ঘটনায় মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার ॥ পুরান ঢাকায় জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের রাস্তা পার হওয়ার সময় বাসের ধাক্কায় এক ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। এদিকে সবুজবাগে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। অন্যদিকে ভাটারা এলাকায় পৃথক অভিযানে ৪৩ হাজার ইয়াবাসহ ৯ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে ডিবি পুলিশ। এ সময় মাদক ব্যবসায় ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়। শুক্রবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ সব তথ্য জানা গেছে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার সকালে পুরান ঢাকার কোতোয়ালি থানাধীন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের রাস্তা পার হচ্ছিলেন জহুর আলী মাতব্বর (৬০)। এ সময় বেপরোয়া গতির একটি যাত্রাবাহী বাস তাকে ধাক্কা দেয়। পরে তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরী বিভাগে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জ জেলার মোকছেদপুর উপজেলার লোহাহিল গ্রামে। তিনি রাজধানীর মিটফোর্ড রজনী ঘোষ লেন এলাকায় একটি বাসায় ভাড়া থাকতেন। কোতোয়ালি থানার উপ-পরিদর্শক দেলোয়ার হোসেন জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে জহুর আলী জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ২ নম্বর গেটের সামনের রাস্তা পার হচ্ছিলেন। এ সময় বাহাদুর শাহ্ পরিবহনের একটি বাস তাকে ধাক্কা দেয়। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

ধর্ষণ ॥ রাজধানীর সবুজবাগ থানার নন্দীপাড়া এলাকায় এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। পরে এ ঘটনায় তিনি এলাকার কয়েক যুবকের বিরুদ্ধে গণধর্ষণের অভিযোগ এনে সবুজবাগ থানায় মামলা করেন। এদিকে শুক্রবার দুপুর আড়াইটার দিকে ওই গৃহবধূ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য আসেন। পরে লোকলজ্জার ভয়ে সেখান থেকে তিনি চিকিৎসা না নিয়ে ফিরে আসেন। সবুজবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রফিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার রাতে ২৬ বছর বয়সী ওই মহিলা ধর্ষণের অভিযোগ এনে থানায় মামলা করেন। ওই মহিলার দাবিÑ একই এলাকার মেহেদি, খোকন, লিটন ও কবির নামে কয়েকজন মিলে তাকে গণধর্ষণ করে।

মাদকদ্রব্যসহ ৯ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার ॥ রাজধানীর ভাটারা থানা এলাকায় পৃথক অভিযানে ৪৩ হাজার ইয়াবাসহ ৯ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেÑ মায়া আক্তার ওরফে মায়া, মোঃ সুমন সিকদার ওরফে চুইং, সালাউদ্দিন ওরফে সুমন, মোঃ নাসিক আহম্মেদ ওরফে আনন্দ, মোঃ সামছুল হক, মোঃ ফারুক হোসেন, মোঃ রুবেল, মোঃ মাসুদ রানা, মোঃ মাকসুদুল আলম স্বপন ও হিরু হাওলাদার। এ সময় তাদের কাছ থেকে ইয়াবা বহনকারী একটি এক্স করোলা প্রাইভেটকার উদ্ধার করা হয়। পরে তাদের কাছ থেকে মাদক ব্যবসায়ীদের ব্যবহৃত একটি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (ডিসি) মুনতাসিরুল ইসলাম জানান, বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ভাটারা থানার বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা থেকে ৪০ হাজার ইয়াবাসহ পাঁচ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়।