২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

প্রীতি ম্যাচে মালয়-পরীক্ষায় অবতীর্ণ বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল ফিফা বিশ্বকাপের এবং এএফসি এশিয়ান কাপের বাছাইপর্বের ‘এ্যাওয়ে’ ম্যাচ খেলবে এশিয়ার পরাশক্তি অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। পার্থে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচটি হবে আগামী ৩ সেপ্টেম্বর। তবে অস্ট্রেলিয়াকে মোকাবেলা করার আগে মালয়েশিয়া জাতীয় ফুটবল দলের সঙ্গে তাদের মাটিতে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ। ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে আজ বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা পৌনে ৭টায়। অসি-পরীক্ষার আগে মালয়-পরীক্ষায় অবতীর্ণ হওয়ার ভেন্যু হচ্ছে শাহ্ আলম ফুটবল স্টেডিয়ামে। খেলাটি সরাসরি সম্প্রচার করবে এ্যাস্ট্রো এ্যারেনা চ্যানেল ৮০২। ম্যাচের আগে বাংলাদেশ শুক্রবার বিকেলে শাহ্ আলম স্টেডিয়ামে শেষবারের মতো অনুশীলন করে। গত বুধবার রাতে মালয়েশিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ছাড়ে ৩৩ সদস্যের বাংলাদেশ জাতীয় দল (২৩ ফুটবলার)। এই ম্যাচটাতে ভাল করতে পারলে অস্ট্রেলিয়ার ম্যাচটায় আত্মবিশ্বাসটা বহুগুণে বেড়ে যাবে মামুনুল বাহিনীর।

র‌্যাঙ্কিংয়ের বিচারে উভয় দলের ব্যবধান উনিশ-বিশ। মালয়েশিয়ার ফিফা র‌্যাঙ্কিং ১৬৮, বাংলাদেশের ১৭০। তবে পরিসংখ্যানের নিরিখে আবার এগিয়ে মালয়েশিয়াই। ফিফা ডট কমের তথ্য অনুযায়ী দু’দল এ পর্যন্ত খেলেছে ১৬ ম্যাচ। এর ৮টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ, ২টি ফিফা বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে এবং বাকি ৬টি ফ্রেন্ডলি ম্যাচ। লিস্ট ‘এ’ ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছে ১ ও মালয়েশিয়া জিতেছে ৬ ম্যাচে। বাকি ম্যাচটি ড্র হয়। গোল করেছে বাংলাদেশ ৩ এবং মালয়েশিয়া ১৬টি। ফিফা বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ২ ম্যাচেই জিতেছে মালয়েশিয়া। বাংলাদেশের গোল নেই এবং মালয়েশিয়ার গোল ৩। এছাড়া ফ্রেন্ডলি ম্যাচে বাংলাদেশের একমাত্র জয়ের বিপরীতে মালয়েশিয়ার জয় ৪ ম্যাচে। বাকি ম্যাচটি ড্র হয়। বাংলাদেশের গোল ৩ এবং মালয়েশিয়ার গোল ১৩। শুক্রবার ম্যাচ পূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের হেড ও ডাচ্ কোচ লোডভিক ডি ক্রুইফ বলেন, ‘আমরা এখানে এসেছি অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে ২০১৮ ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচ খেলার আগে মালয়েশিয়া দলের বিপক্ষে একটি প্রস্ততি ম্যাচ খেলতে। এই প্রস্তুতি ম্যাচটি আমাদের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ। মালয়েশিয়া অনেক ভাল দল। এ বছরের শুরুতে যখন বাংলাদেশে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ অনুষ্ঠিত হয়েছিল তখন মালয়েশিয়া যুব দল ওই আসরে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল আমাদের হারিয়ে। তখন মালয়েশিয়া দলের খেলা ভাল মতো পর্যবেক্ষণ করেছিলাম। ওই দলের অনেকেই এখন জাতীয় দলে খেলছে। মনে হচ্ছে তাদের হারাতে হলে আমাদের অনেক পরিশ্রম করতে হবে।’ বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক-মিডফিল্ডার মামুনুল ইসলাম বলেন, ‘উভয় দলের জন্যই ম্যাচটি অনেক কঠিন ও প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে। মালয়েশিয়া দল সম্পর্কে ভাল ধারণা আছে। তাদের বিপক্ষে অনেক ম্যাচে খেলেছি। এ দলে অনেক ভাল খেলোয়াড় আছে। তাদের হারানোর জন্য আমরা সর্বাত্মক চেষ্টা করব ও বাংলাদেশের মানুষকে শুভ খবর দেব।’ মালয়েশিয়ার কোচ দোল্লাহ্ বিন সালেহ্ বলেন, ‘আমার দলের কিছু খেলোয়াড় অবসাদে ভুগছে। প্রস্তুতিও বেশিদিনের নয়। তারপরও দলের সবার মনোবল ভাল অবস্থায়। তারা বাংলাদেশকে হারাতে আত্মবিশ্বাসী। মাঠেই আমরা তার প্রমাণ দেব। ক’দিন পরেই আরব আমিরাত ও সৌদি আরবের বিপক্ষে ফিফা বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের দুটি ম্যাচ আছে আমাদের। তাই বাংলাদেশের বিপক্ষে ম্যাচটি খেলে আমরা ভালভাবে প্রস্তুতি নিতে চাই। এখন দেখার বিষয় মালয়েশিয়ার সঙ্গে প্রস্তুতি ম্যাচে কেমন ফল করে বাংলাদেশ।