২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঝিনাইদহে হাসপাতালে রোগীর মৃত্যু ॥ পালিয়ে গেছে ডাক্তার-নার্স

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝিনাইদহ, ২৮ আগস্ট ॥ ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার কবিরপুরে আয়েশা প্রাইভেট হাসপাতালে অপচিকিৎসায় হিটলার নামে এক যুবক মারা গেছে। শুক্রবার ভোরে রোগীর মৃত্যুর পর প্রাইভেট হাসপাতাল থেকে মালিক সাইদুর রহমানসহ ডাক্তার, নার্স, আয়া সবাই পালিয়ে গেছে। মৃত হিটলার শৈলকুপা উপজেলার শেখরা গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে। পুলিশ হাসপাতালে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে। শৈলকুপা থানার ওসি এমএ হাশেম খান জানান, গত ২২ আগস্ট হিটলার শৈলকুপা হাসপাতালে এ্যাপেনডিস চিকিৎসার জন্য আসে। সেখান থেকে এক দালাল তাকে হাসপাতালের পার্শ্ববর্তী অন্য একটি প্রাইভেট হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করে। সেখান থেকে ২৫ আগস্ট আরেক দালাল হিটলারকে ভাগিয়ে নিয়ে আয়েশা প্রাইভেট হাসপাতালে ভর্তি করে। ওই দিনই কালীগঞ্জ থেকে আসা আসলাম ডাক্তার তার এ্যাপেনডিস অপারেশন করে চলে যান। এ হাসপাতালে কোন ডাক্তার ও নার্স থাকে না। এক রকম বিনা চিকিৎসায় তিন দিন পর শুক্রবার ভোরে হিটলার মারা যায়। রোগীর মৃত্যুর পর হাসপাতালের মালিক সাইদুর রহমান, ডাক্তার, নার্স, আয়া ও কর্মচারীরা পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠায়। মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। এর কয়েক মাস আগে এই হাসপাতালে অপচিকিৎসায় এক প্রসূতির মৃত্যু হয় বলে ওসি জানান। ওই ঘটনায় প্রসূতির স্বজন দুই ডাক্তার ও হাসপাতালের মালিক সাইদুর রহমানের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। সে মামলা এখনও বিচারাধীন আছে।