২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফেসবুকের ড্রোন আকাশে ওড়ার জন্য প্রস্তুত

  • ফটো ফিচার

প্রায় দেড় বছর আগের ঘটনা। সবার অজান্তে কোন ঘোষণা ছাড়াই ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ড্রোন তৈরির দিকে নজর দিয়েছিল। চীনের যন্ত্র নির্মাতা প্রতিষ্ঠান যারা ড্রোন তৈরি করে, তাদের মধ্যে ডিজেআইয়ের সঙ্গে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ আট বিলিয়ন ডলারের চুক্তি করে ড্রোনটি নির্মাণ করতে। আর এর সঙ্গে গোপনীয়তা ছিল বেশ কঠোরভাবে।

ফেসবুক তাদের ড্রোনের নাম দিয়েছে একুলি। বিভিন্ন গবেষণা করে, বিভিন্ন দিক দিয়ে পরীক্ষায় পাস করে সফল উড্ডয়ন করতে যাচ্ছে ‘একুলি’।

সিটিও ফোরামে অংশ নিল ভিসা সংস্থা

সিটিও ফোরাম বাংলাদেশ ‘আইটি সিকিউরিটি এ্যান্ড ফ্রড ডিটেকশন কনসিডারিং বাংলাদেশ প্রসপেক্ট’ (আইটি নিরাপত্তা এবং জালিয়াত শনাক্তকরণ প্রেক্ষিত বাংলাদেশ) শীষর্ক এক সেমিনারের আয়োজন করল। সেমিনারের উদ্দেশ্য এবং আয়োজনের বিভিন্ন দিক সম্পর্কে অবহিত করা হয় এবং বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে ডিজিটাল লেনদেন এবং নিরাপত্তা বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধিতে সেমিনারটির গুরুত্ব তুলে ধরা হয়।

‘আইটি সিকিউরিটি অ্যান্ড ফ্রড ডিটেকশন-সিকিউরিং দ্য ডিজিটাল পেমেন্টস ইন বাংলাদেশ’ (আইটি নিরাপত্তা এবং জালিয়াত শনাক্তকরণ বাংলাদেশে ডিজিটাল লেনদেনের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ)- শিরোনামের সেমিনারটি অনুষ্ঠিত হয় ২৭ আগস্ট, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ব্যাংক ম্যানেজমেন্ট (বিআইবিএম) ভবন, ঢাকায়। সিটিও ফোরাম বাংলাদেশ এবং বিআইবিএম যৌথভাবে সেমিনারটি আয়োজন করে। এতে সহযোগিতায় আছে ভিসা ওয়ার্ল্ডওয়াইড প্রাইভেট লিমিটেড।

সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গবর্নর নাজনীন সুলতানা। বিআইবিএমের ডিরেক্টর জেনারেল ড. তৌফিক আহমদ চৌধুরী সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বলে নিশ্চিত করেছেন সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট তপন কান্তি সরকার। তিনি আরও জানিয়েছেন, সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন শিবকুমার শ্রীরমন, চিফ রিস্ক অফিসার, ইন্ডিয়া এ্যান্ড সাউথ এশিয়া, ভিসা।

সেমিনারে প্যানেল আলোচকদের মধ্যে ছিলেনÑ এসএম মাঈনউদ্দিন চৌধুরী, ডেপুটি ম্যানেজিং ডিরেক্টর, সাউথ ইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, নওয়াদ ইকবাল, ভাইস-প্রেসিডেন্ট, সিটিও ফোরাম বাংলাদেশ, ড. ইজাজুল হক, হেড অব আইটি, কমার্শিয়াল ব্যাংক অব সিলন পিএলসি, দেবদুলাল রায়, সিনিয়র সিস্টেম এ্যানালিস্ট (ডিজিএম), বাংলাদেশ ব্যাংক এবং মো. এাহবুবুর রহমান আলম, সহযোগী অধ্যাপক, বিআইবিএম। সেমিনারে প্রশ্নোত্তর পর্ব সঞ্চালনা করেন সিটিও ফোরাম বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট তপন কান্তি সরকার।

অনলাইন বাণিজ্য এবং লেনদেন জনপ্রিয়তা পাচ্ছে সারাদেশে। দেশে বর্তমানে ৭০০-এর বেশি অনলাইন শপ রয়েছে। অনলাইনে কেনাবেচার পরিমাণও বেড়েই চলছে। বিগত কয়েক দশক ধরে অর্থ পরিশোধ সেবার মাধ্যম হিসেবে ‘ডিজিটাল পেমেন্ট’ বিশ্বজুড়ে সমাদৃত হয়ে আসছে। কিন্তু বিশ্বজুড়ে এই সেবা পদ্ধতির উন্নয়নের ক্ষেত্রে এর নিরাপত্তার প্রশ্নটি মূল বিবেচ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। ক্রেডিড কার্ড জালিয়াতিসহ অনলাইন লেনদেনের নিরাপত্তা ঝুঁকিও বেড়েছে সেইসঙ্গে। যদিও বিশ্বের অন্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে কম কিন্তু ক্রম বর্ধিত। ভবিষ্যত নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজন পূর্ব প্রস্তুতি।

এই পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ প্রেক্ষাপটে করণীয় বিষয় কী হতে পারেÑ তা জানতেই মূলত এই সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

দেশব্যাপী এবং সংশ্লিষ্টদের মাঝে অনলাইন জালিয়াতির বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি এবং সঠিক প্রযুক্তি ব্যবহারে কিভাবে জালিয়াতি হতে সাবধান থাকা যায় সে বিষয়ে বিষদ আলোচনা এবং দিকনির্দেশনা পেতে ঈঞঙ ফোরামের এই আয়োজন। দেশে অনলাইনসহ মোবাইল ব্যাংকিংসেবা বৃদ্ধির হার আশাব্যঞ্জক প্রযুক্তি আধুকায়নের ছোয়া ব্যাংক খাত এগিয়ে নিয়ে গেছে বহুদূর। এ ধারা অব্যাহত রাখতে এবং লেনদেন নিরাপদে সম্পন্ন করতে প্রয়োজন এর নিরাপত্তা। জালিয়াতি নির্ধারণ এবং নিরাপত্তা বিধান ক্রমবর্ধিত অনলাইন লেনদেনে অন্যতম প্রধান প্রতিবন্ধকতা।