২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গাইবান্ধার বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের দূর্ভোগ

 গাইবান্ধার বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের দূর্ভোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা॥ করতোয়া নদীর পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকায় গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি অবনতি হলেও সুন্দরগঞ্জ, ফুলছড়ি, সাঘাটা, পলাশবাড়ি ও সদর উপজেলার সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে শনিবার ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় তিস্তা ২ সে. মি. ও করতোয়ার পানি ২ সে. মি. বৃদ্ধি পেয়ে করতোয়া এখন বিপদসীমার ৩২ সে. মি. উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এছাড়া তিস্তার পানি বেড়েছে ২ সে. মি.। এসময় ব্রহ্মপুত্রের পানি ১০ সে. মি. এবং ঘাঘটের পানি ৬ সে. মি. হ্রাস পেয়ে এখন বিপদসীমার সামান্য নিচে দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এ পর্যন্ত দূর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয় ২শ’ মে. টন চাল ও নগদ ৭ লাখ টাকা বরাদ্দ পাওয়া গেছে। ইতোমধ্যে ১শ’ ৫০ মে. টন চাল এবং ৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা দুর্গত মানুষদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে। এদিকে সুন্দরগঞ্জের কাপাশিয়া ইউনিয়ানের লাল চামার ঘাট ও শ্রীপুরে শনিবার ১ হাজার বন্যার্ত মানুষের মধ্যে জরুরী ত্রাণ সহায়তা হিসেবে ১০ কেজি করে চাল বিতরণ করেন গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। এসময় উপস্থিত ছিলেন সুন্দরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল হাই মিল্টন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রেজিয়া বেগম, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক সৈয়দা খুরশিদ জাহান স্মৃতি।