২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টাঙ্গাইলে লৌহজং নদী ভাঙনের কবলে দেড় শতাধিক পরিবার

টাঙ্গাইলে লৌহজং নদী ভাঙনের কবলে দেড় শতাধিক পরিবার

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল॥ সদর উপজেলার বড় বাসালিয়া গ্রামের দেড় শতাধিক পরিবার লৌহজং নদীর ভাঙনের কবলে পড়েছে। যমুনার শাখা লৌহজং নদীতে পানি বৃদ্ধির সাথে সাথে তীব্র ভাঙনও শুরু হয়েছে। গত তিনদিনে বড় বাসালিয়া গ্রামের নদী তীরবর্তী অর্ধশতাধিক পরিবার বাড়িঘর সরিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নিয়েছে। অন্যরাও বাড়িঘর সরিয়ে নিচ্ছে। লৌহজং নদীর ভাঙনের ফলে নির্মাণাধীন একটি ব্রিজ, স্কুল ও তীরবর্তী বাড়িঘর হুমকির মুখে পড়েছে। ভাঙনের ফলে এসব এলাকার মানুষ ঘরবাড়ি হারিয়ে নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। ভাঙন কবলিত এলাকার বিক্ষুব্ধ মানুষ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের দায়িত্বে অবহেলাকে দায়ী করেছেন।

জানা যায়, টাঙ্গাইল সদর উপজেলার মগড়া ইউনিয়নের বড় বাসালিয়া উত্তরপাড়া থেকে লৌহজং নদীর ভাঙন শুরু হয়ে দক্ষিণপাড়া হয়ে পৌলী পর্যন্ত ভাঙন বিস্তৃত হয়েছে। ভাঙন কবলিত পরিবারগুলো বাড়িঘর সরিয়ে নিয়ে আতœীয়-স্বজনের বাড়ি, স্কুল, মাদ্রাসা ও বিভিন্ন সরকারি খাসভূমিতে কোন রকমে আশ্রয় নিয়ে মানবেতর জীবন কাটাচ্ছে। বিষয়টি টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ড ও স্থানীয় এমপিকে জানানো হয়। এমপি টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডকে বিষয়টি দেখে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বললেও এখনও কোন প্রতিকার করা হয়নি। এরই মধ্যে টানা বর্ষণে নদীর পানি বেড়ে যাওয়ায় ভাঙনের তীব্রতা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। ইতোমধ্যে অর্ধশতাধিক পরিবারের বাড়িঘর নদীতে বিলীন হয়ে গেছে এবং শতাধিক পরিবার, একটি নির্মাণাধীন ব্রিজ ও স্কুল ভাঙনের হুমকিতে পড়েছে। ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারগুলো এখনও সরকারি-বেসরকারি কোন সাহায্য পায়নি বলেও জানান তারা।

এ বিষয়ে টাঙ্গাইল পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী শাজাহান সিরাজ জানান, ভাঙনের কথা তিনি শুনেছেন। প্রয়োজনীয় বরাদ্দ পেলে ভাঙন রোধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।