২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নাগরিকদের কর প্রদানে উৎসাহ দিতে ইমামদের প্রশিক্ষণের উদ্যোগ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের যোগ্য নাগরিকদের কর প্রদানে উৎসাহ দিতে সারাদেশের ইমাম-মুয়াজ্জিনদের প্রশিক্ষণ দেয়ার উদ্যোগ নিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। সম্প্রতি এনবিআরের বোর্ড সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এ বিষয়ে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সঙ্গে বৈঠক করে প্রশিক্ষণ শুরু করা হবে। এনবিআর’র জরিপ অনুযায়ী, দেশের মাত্র ১ শতাংশ মানুষ কর দিচ্ছে। যেখানে ভারতে ৩ শতাংশের বেশি মানুষ কর দেয়।

করযোগ্য আয় থাকার পরও দেশের একটি বড় অংশ আয়কর দেয় না। ফলে দেশের অভ্যন্তরীণ আয় কম হওয়ায় উন্নয়ন ও সুশাসনে ব্যাঘাত সৃষ্টি হয়। সূত্র জানিয়েছে, ‘কর প্রদান নৈতিক ও ইমানী দায়িত্ব’ এ বিষয়ে মানুষকে সচেতন করে তাদের মাঝে কর প্রদানে উৎসাহ ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে উদ্যোগ নিয়েছে এনবিআর। এর আগে কর সচেতনতা বাড়াতে সভা, সেমিনার, বিলবোর্ড, টিভি টকশো, বিজ্ঞাপন, ডকুমেন্টারি প্রদর্শনসহ নানা উদ্যোগ নিয়েছিল এনবিআর।

এছাড়া প্রতি বছর সারাদেশে আয়কর মেলা, সর্বোচ্চ করদাতাকে সম্মাননা, সিআইপি কার্ড প্রদান করার মাধ্যমে কর প্রদানে মানুষকে উদ্বুদ্ধ করে আসছে এনবিআর।

সংখ্যা কম হওয়া কর কর্মকর্তারা প্রত্যন্ত অঞ্চলসহ দেশের সব জায়গায় সচেতনতা সৃষ্টির কাজ করতে পারেন না। কিন্তু যেহেতু দেশের সব এলাকায় মসজিদ রয়েছে তাই এ উদ্যোগ সফল হবে।

প্রশিক্ষণ এ বছর থেকেই শুরু করা হবে বলে জানা গেছে। চলতি বাজেটে দেশের অন্তত অর্ধেক মানুষকে আয়করের আওতায় আনার উদ্যোগ নিতে এনবিআরকে নির্দেশ দিয়েছে অর্থমন্ত্রী। এরই অংশ হিসেবে এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন সূত্রে জানা যায়, দেশে মসজিদের সংখ্যা প্রায় আড়াই লাখ। প্রতি মসজিদে একজন ইমাম ও একজন মুয়াজ্জিন রয়েছে। প্রতিবছর তাদের ইসলামের মৌলিক বিষয়ের পাশাপাশি শিক্ষা, পরিবার কল্যাণ, পরিবেশ, চিকিৎসা, তথ্যপ্রযুক্তিসহ নানা বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয় ইসলামিক ফাউন্ডেশন।