১৭ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বঙ্গবন্ধুকে বিভক্ত করে আমরা নিজেরাই নিজেদের খাটো করছি

  • অচিরেই সর্বজনীনভাবে জাতীয় শোক দিবস পালিত হবে ॥ সৈয়দ আশরাফ

স্টাফ রিপোর্টার ॥ অচিরেই সর্বজনীনভাবে জাতীয় শোক দিবস পালিত হবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম, এমপি। তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সকল জাতি ও রাজনৈতিক দলের নেতা। ক্রমে ক্রমে তিনি আরও বেশি শক্তিশালী হয়ে উঠছেন। বঙ্গবন্ধুকে বিভক্ত করে আমরা নিজেরাই নিজেদের খাটো করছি। আওয়ামী লীগ ও বিএনপিসহ সবাই একসঙ্গে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানোর দিন খুব বেশি দূরে নয়। বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কোন বিতর্ক থাকুক, তা আমরা চাই না।

বুধবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত শোক দিবসের ৪০ দিনব্যাপী কর্মসূচীর সমাপনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক এমপি, সাবেক সংসদ সদস্য ডাঃ মোস্তফা জালাল মহিউদ্দীন, আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদক ডাঃ বদিউজ্জামান ভূঁইয়া ডাবলু। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (শিক্ষা) অধ্যাপক ডাঃ মোঃ রুহুল আমিন মিয়া, উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডাঃ মোঃ শহীদুল্লাহ সিকদার, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডাঃ মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদ, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ডাঃ মোঃ জুলফিকার রহমান খান।

জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধুকে শারীরিকভাবে হত্যা করা হলেও তাঁর আদর্শ ও মূল্যবোধকে হত্যা করা যায়নি। তাঁর আদর্শ আজ সারাবিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে। তাই তাঁকে একটি রাজনৈতিক দলের ভেতরে রাখা আর সম্ভব নয়। তিনি সর্বজনীন।

বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান খান বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিজের জীবন দিয়ে স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষা করার শিক্ষা দিয়ে গেছেন। বঙ্গবন্ধু কন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শক্তিশালী নেতৃত্বে সঠিক পথে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ। দেশের মানুষের কল্যাণে বাস্তবায়িত হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন। কল্যাণমূলক নেতৃত্বের সুবাদে একের পর এক আন্তর্জাতিক পুরস্কার গ্রহণ করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল হয়ে উঠেছে। জাতির জনকের জীবনচর্চা করে রোগীসেবায় নিজেদের আরও আত্মনিয়োগ করার জন্য চিকিৎসকদের প্রতি আহ্বান জানান অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান খান। তিনি আরও বলেন, জাতির জনকের নামে প্রতিষ্ঠিত দেশের একমাত্র মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে ‘রোগীর সেবায় হই আরও যতœবান’ এ থিমকে সামনে রেখে ৪০ দিনব্যাপী কর্মসূচী গ্রহণ করা হয়েছে যাতে মহান ত্যাগে মহিমান্বিত বঙ্গবন্ধুর জীবনাদর্শ আমাদের কর্মের মধ্য দিয়েও প্রতিফলিত হয়। বঙ্গবন্ধু দুঃখী মানুষের মুখে হাসি ফোটানোর জন্য তাঁর সমগ্র জীবন ব্যয় করেছেন। নিজের জীবন পর্যন্ত দিয়ে দেশ ও দেশের মানুষকে ভালবেসেছেন। আমরা প্রত্যেকে যদি যে যেখানে আছি, নিজ নিজ দায়িত্ব ও কর্তব্য যথাযথভাবে পালন করি তবে সেটাই হবে বঙ্গবন্ধুর প্রতি যথার্থ শ্রদ্ধা নিবেদন। সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক বলেন, সেবা দিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের উন্নয়ন কার্যক্রমের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহ্বান জানান আ ফ ম রুহুল হক।