২৪ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুমিনুল-নাসিরদের লক্ষ্য সিরিজ জয়

  • বাংলাদেশ ‘এ’ দলের ভারত সফর, পুরোদমে চলছে জাতীয় দলের অনুশীলনও

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জাতীয় দলে খেলেননি এমন ক্রিকেটার মাত্র একজন আছেন। তিনি সাকলায়েন সজিব। এছাড়া ভারত সফরের জন্য বাংলাদেশ ‘এ’ দল যে ঘোষণা করা হয়েছে, ১৪ ক্রিকেটারই জাতীয় দলের জার্সি গায়ে খেলেছেন। এই দলটি ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ক্রিকেট খেলবে বলেই আশা প্রকাশ করেছেন ভারত সফরের ঘোষিত বাংলাদেশ ‘এ’ দলের সহ-অধিনায়ক নাসির হোসেন। সঙ্গে বলেছেন, ‘সিরিজ জেতার জন্যই খেলতে যাব।’

জাতীয় দলের ‘এলিট প্লেয়ারস কন্ডিশনিং ক্যাম্প’ পুরোদমে চলছে। সেই ক্যাম্পে আছেন ‘এ’ দলের ক্রিকেটাররাও। জিম, ব্যাটিং, বোলিং পুরোদমে করছেনও। বুধবার অনুশীলন শেষে নাসির জানালেন, ‘সিরিজটা প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে আশা করছি। আমাদের দলটা খুব পরিপক্ব। দলের ১৪ ক্রিকেটারেরই জাতীয় দলে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। তাছাড়া ভারত ‘এ’ দলও শক্তিশালী হবে। সিরিজটা ভালই হবে আমাদের জন্য।’

হঠাৎ করেই বাংলাদেশ ‘এ’ দলকে ভারত সফরে যেতে হচ্ছে। ভারত সফরের জন্য ঘোষিত বাংলাদেশ ‘এ’ দলের সব ক্রিকেটারই ছিলেন অনুশীলন ক্যাম্পে। কেবল ম্যাচ খেলাই হচ্ছিল না। সেটিও হওয়ার পথে। ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে তিন ওয়ানডে ও একটি তিনদিনের ম্যাচে খেলতে আগামী সপ্তাহেই ভারত যাবে জাতীয় দলের আদলে গড়া বাংলাদেশ ‘এ’ দল। বাংলাদেশ দলে অধিনায়কত্বের দায়িত্বে থাকবেন মুমিনুল হক। রঞ্জি ট্রফির চ্যাম্পিয়ন দল কর্ণাটকের বিপক্ষেও একটি তিনদিনের ম্যাচ খেলবে মুমিনুলের দল। বাংলাদেশ ‘এ’ দল শক্তিশালী হওয়াতেই প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ক্রিকেটের আশা করছেন দলের সহ-অধিনায়ক নাসির। জেতার স্বপ্নও দেখছেন।

সূচী অনুযায়ী আগামী ১৬ সেপ্টেম্বর ব্যাঙ্গালুরুতে শুরু হবে ওয়ানডে সিরিজ। পরের দুটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ১৮ ও ২০ সেপ্টেম্বর।

২২ সেপ্টেম্বর শুরু হবে প্রথম তিনদিনের ম্যাচ, প্রতিপক্ষ কর্ণাটক। ২৭ সেপ্টেম্বর ব্যাঙ্গালুরুতে ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে দ্বিতীয় ও শেষ তিনদিনের ম্যাচটি মাঠে গড়াবে।

এ সফরের ‘এ’ দলের নেতৃত্ব পেয়ে জেতার সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ার কথা বলেছেন নাসির। অধিনায়ক মুমিনুল ভাল কিছু করার স্বপ্ন দেখছেন। ভারত ‘এ’ দল বুধবারই ঘোষণা করেছে। দলে শিখর ধাওয়ান, উন্মুক্ত চাঁদ, মানিশ পান্ডে, সুরেশ রায়না, ধাওয়াল কুলকার্নির মতো ক্রিকেটাররা আছেন। এরপরও মুমিনুলে আশা, ‘দল খুব ভাল হয়েছে। আমি খুশি। জাতীয় দলের আমরা সবাই আছি, নতুন কিছু মনে হবে না। অনেকেরই অনুশীলন দরকার, অনেকেই দলে ফেরার আশায় আছে। আশা করি আমরা ভাল কিছু করতে পারব।’

নাসির বলেছেন, ‘আমাদের কাজ হবে, ওইখানে গিয়ে ভাল ক্রিকেট খেলা। আমি মনে করি জাতীয় লীগের চেয়ে এটা ভাল সুযোগ। কারণ এটা ভারত ‘এ’ দলের সঙ্গে খেলা। তারা শক্তিশালী একটা দল। জাতীয় লীগে খেলি ঠিক আছে, কিন্তু আমার মনে হয় এখানে ফোকাসটা বেশি থাকবে। কঠিন লড়াই হবে। আমাদের খেলোয়াড়দেরও ইচ্ছা থাকবে ওইখানে পারফর্ম করার।’

ভারত ‘এ’ দলও শক্তিশালী করেই গড়া হয়েছে। কিন্তু নাসির সেইদিকটি নিয়ে ভাবতেই রাজি নন, ‘কে খেলল না খেলল সেটা বড় কথা নয়।’ সঙ্গে যোগ করেন, ‘আমি মনে করি এটা অস্ট্রেলিয়া সিরিজের জন্য একটা প্রস্তুতি।

সে কারণেই হয়তো এখানে জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা বেশি খেলছে। এটা আমাদের জন্য একটা ভাল সুযোগ যে ভারতে গিয়ে তাদের ‘এ’ দলের সঙ্গে খেলতে পারছি। এখানে ভাল খেলতে পারলে অস্ট্রেলিয়া সিরিজে অবশ্যই সেটা কাজে দেবে।’

তিনদিনের ম্যাচের দিকেই বেশি ফোকাস থাকবে। সামনে যে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ রয়েছে। তবে ওয়ানডে সিরিজ জেতাই প্রথম লক্ষ্য বলেই জানিয়েছেন নাসির, ‘ফোকাস দুই দিকেই থাকবে। প্রথমত আমরা ওয়ানডে সিরিজ জিততে যাব। তিনদিনের ম্যাচ পরে হওয়াতে ভাল হয়েছে। এটা খেলে এসেই আমরা অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে টেস্ট খেলব।’

নাসির ব্যক্তিগত লক্ষ্য নিয়ে এত ভাবতে চান না। বলেছেন, ‘আমার আসলে ব্যক্তিগত কোন লক্ষ্য নাই। যতটুকু সুযোগ পাই সেটা কাজে লাগানোই আমার ব্যক্তিগত লক্ষ্য। আর অবশ্যই ভাল ক্রিকেট খেলা। হার জিত বড় নয়। আমরা যেন ভাল একটা সফর করে আসতে পারি।’