১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গরুতে ভরে গেছে টেকনাফের হাট

স্টাফ রিপোর্টার, কক্সবাজার ॥ মিয়ানমার থেকে আমদানিকৃত গবাদি পশুর চালান আসছে প্রতিদিন। ঈদ-উল আযহা সামনে রেখে টেকনাফে জমে উঠছে কোরবানি পশুর হাট। কিন্তু দাম চড়া। সাধারণ লোকজনের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। মিয়ানমার থেকে গবাদিপশু আমদানিকারক আবু সৈয়দ মেম্বার ও শহীদ জানান, ভারত থেকে পশু আমদানি বন্ধ থাকায় এখানে পশুর দাম আগের তুলনায় ২-৩ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে মিয়ানমার থেকে প্রচুর পরিমাণ গবাদিপশু আনার জন্য দেশটির ব্যবসায়ীদের সঙ্গে চুক্তি হয়েছে। চুক্তি অনুযায়ী পশু আসতে শুরু করছে বর্তমানে। তবে সমস্যা হচ্ছে, মিয়ানমার সীমান্ত রক্ষীদল বিজিপি টহলে এসে পশু বোঝাই বোট ধরে নিয়ে যায়। ব্যবসায়ীরা আশা প্রকাশ করছেন, কোরবানি উপলক্ষে মিয়ানমার থেকে প্রচুর পরিমাণ গবাদিপশু আসবে টেকনাফে, যা চট্টগ্রাম দক্ষিণ অঞ্চল ছাড়াও দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে সরবরাহ দেয়া সম্ভব হবে। মিয়ানমার থেকে ঢালাওভাবে পশু আমদানি অব্যাহত থাকলে স্থানীয় বাজারে গরু-মহিষের দাম কমতে থাকবে এবং সাধারণ লোকজনের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে চলে আসবে বলে জানান তারা। এদিকে স্থানীয় লোকজনও যে সব গবাদিপশু কোরবানি উপলক্ষে বিক্রির জন্য মোটা তাজাকরণ ও লালন পালন করছেন, তারাও বিক্রির জন্য পশুগুলো বাজারে আনতে শুরু করছেন। টেকনাফ কাস্টম সূত্র জানিয়েছে, গত ১ সপ্তাহের ব্যবধানে ৫ হাজারেও বেশি গবাদিপশু মিয়ানমার থেকে আমদানি করেছেন ব্যবসায়ীরা। যার সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে।