২৩ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যৌতুক ॥ হবিগঞ্জ ও শেরপুরে দুই গৃহবধূ খুন

নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ, ৯ সেপ্টেম্বর ॥ যৌতুকের জন্য বুধবার সকালে চুনারুঘাটের পল্লী উলুকান্দিতে রুবি আক্তার নামে চার মাসের অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা করেছে পাষ- স্বামী। পুলিশ ও পারিবারিক সূত্র জানায়, প্রায় দেড় বছর আগে ওই ইউনিয়নের ফুলতলী গ্রামের বাসিন্দা ও মুশকিল হাসান মাজারের ফুল মিয়ার মেয়ে রুবি আক্তারকে বিয়ে করেন ওই গ্রামের আজদু মিয়া। অভিযোগ, বিয়ের পর থেকেই রুবির ওপর যৌতুকের জন্য নির্যাতন চালাতে থাকে তার স্বামী। এরই জের ধরে মঙ্গলবার রাত থেকে ক্রমান্বয়ে এবং বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার পর্যন্ত থেমে থেমে আজদু তার স্ত্রী রুবিকে মারপিট শুরু করতে থাকার এক ফাঁকে সে তার ভাই মজনু ও বোন রাশেদাকে মোবাইলে তা অবহিত করে। শুধু তাই নয়, এ সময় রুবি নাকি আরও জানায়, তার অবস্থা ভাল নয়। এদিকে স্বামী আজদু উল্টো তাদের জানায়, রুবি গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এমন খবর পেয়ে রুবির পরিবারের লোকজন ছুটে আসে ওই বাড়িতে। কিন্তু তখন রুবি মৃত। তবে ফাঁসির কোন আলামত পায়নি বলে রুবির পরিবারের সদস্যরা উপস্থিত লোকজনকে জানায়।

নিজস্ব সংবাদাদাতা, শেরপুর থেকে জানান, গৃহবধূ কলেজছাত্রীর মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে শহরের রঘুনাথ বাজার এলাকায় এ্যাম্বুলেন্সে বহন করা অবস্থায় ওই মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত নূরানী আক্তার হিমু (২৫) শেরপুর শহরের মধ্যশেরী শিংপাড়ার সাঈদ মিয়ার স্ত্রী ও শেরপুর সরকারী কলেজের ব্যবস্থাপনা বিভাগের অনার্স ফাইনাল ইয়ারের ছাত্রী। বুধবার দুপুরে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্বামী সাঈদকে আটক করেছে পুলিশ।

ওই ঘটনায় মৃত কলেজছাত্রীর পরিবার জানায়, যৌতুকের জন্য তার ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ