২৩ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিদ্ধান্ত ভুল ছিল, এ জন্য দুঃখিত ॥ হিলারি

  • ব্যক্তিগত ইমেইল সার্ভার ব্যবহার

মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধান মনোনয়ন প্রত্যাশী হিলারি ক্লিনটন বলেছেন, প্রাইভেট ইমেল সার্ভার ব্যবহার করা ভুল ছিল এবং তিনি এজন্য দুঃখিত। তিনি নিউইয়র্কে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এবিসি নিউজের ‘ওয়ার্ল্ড নিউজ টুনাইট’ অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। খবর এবিসি নিউজ ও এএফপির।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ডেভিড মায়ুরের সঙ্গে বিশেষ সাক্ষাতকারে হিলারি বলেন, আমি মনে করি আমার প্রাইভেট ইমেল সার্ভার ব্যবহার বিতর্ক নিয়ে আগেই উত্তর দেয়া উচিত ছিল। আমি বোধ হয় তখন এর প্রয়োজন বুঝতে পারিনি।

আমি যা করেছি তা অনুমোদিত ছিল। কিন্তু এখন আমি যখন পেছনে ফিরে তাকাই, তখন দেখি অনুমতি থাকা সত্ত্বেও আমার দুটি ইমেল এ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা উচিত ছিল। একটি ব্যক্তিগত কাজের জন্য, অপরটি তার দায়িত্ব-সংক্রান্ত কাজের জন্য। প্রাইভেট সার্ভার ব্যবহারের সিদ্ধান্ত ভুল ছিল। এজন্য আমি দুঃখিত এবং আমি এর দায়িত্ব নিচ্ছি। কিন্তু মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালনের সময় ব্যক্তিগত ইমেল সার্ভার ব্যবহার নিয়ে তিনি এখনও ক্ষমা প্রার্থনা করেনি।

হিলারি সোমবার মার্কিন বার্তা সংস্থা এপিকে বলেন, আমি যা করেছি তা বৈধ। তাই আমি ক্ষমা চাইব না। তবে মায়ুর যখন তাকে প্রশ্ন করেন, তিনি কি মনে করেন ব্যক্তিগত এ্যাকাউন্ট ব্যবহার করা ভুল ছিল কি না, হিলারি স্বীকার করেন তিনি ভুল করেছেন। হিলারি বলেন, আমি ভুল করেছি। আমি বলেছি, এটা বৈধ ছিল এবং এটা গোপন করার কিছু নেই। সরকারের যাদের সঙ্গে আমি যোগাযোগ করেছি তাদের সবাই জানত আমি ব্যক্তিগত ইমেল ব্যবহার করি। তবে আমি দুঃখিত যে এজন্য এত প্রশ্ন উঠছে। তাই আমি এর সম্পূর্ণ দায়িত্ব নিচ্ছি যে এটা সঠিক সিদ্ধান্ত ছিল না। পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকার সময় হিলারি নিউইয়র্কের চাপাকুয়ায় তার বাড়িতে থাকা প্রাইভেট ইমেল সার্ভার থেকে কাজ সংক্রান্ত ইমেল পাঠাতেন ও গ্রহণ করতেন।

কিন্তু এতে গোপন তথ্য থাকায় তার এই সিদ্ধান্ত নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তার প্রাইভেট ই-মেল ব্যবহার ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্রেটিক পার্টির মনোনয়ন লাভের প্রতিদ্বন্দ্বিতার এ সময়ে অনেক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।