১৪ নভেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভ্যাট দেবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এনবিআরের ব্যাখ্যা

  • ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলন

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর আরোপিত ভ্যাট শিক্ষার্থীরা নয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে দিতে হবে বলে জানিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। ওই কর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের আয়ের ওপর ধার্য হয়, এটা পরিশোধের দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের, কোনভাবেই বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের নয় বলে জানায় এনবিআর।

বৃহস্পতিবার যখন এই ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে ঢাকা ও চট্টগ্রামে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা তখন এনবিআর এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই ব্যাখ্যা দেন।

এনবিআরের জনসংযোগ কর্মকর্তা সৈয়দ এ মু’মেন স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয় ‘নতুন করে শিক্ষার্থীদের নিকট হতে আদায়ের উদ্দেশ্যে ভ্যাট আরোপ করা হয়নি। বিদ্যমান টিউশন ফি’র মধ্যে ভ্যাট অন্তর্ভূক্ত রয়েছে। ভ্যাট বাবদ অর্থ পরিশোধ করার দায়িত্ব সম্পূর্ণরূপে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের, কোনক্রমেই শিক্ষার্থীদের নয়। বিদ্যমান টিউশন ফি’র মধ্যে ভ্যাট অন্তর্ভূক্ত থাকায় ‘টিউশন ফি বাড়ার’ কোন সুযোগ নেই।

প্রসঙ্গত, চলতি অর্থবছরের (২০১৫-২০১৬) বাজেটে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিকেল এবং ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফি’র ওপর সাড়ে ৭ শতাংশ হারে এই ভ্যাট আরোপ করে সরকার। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড গত ৪ জুলাই এ বিষয়ে আদেশ জারি করে।

এরপর থেকেই এসব প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ-সমাবেশসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছেন।

তবে, এই ভ্যাট যে কোনভাবেই কমানো হবে না বলে গত মাসে সাফ জানিয়েছিলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

ওই সময় তিনি বলেছিলেন, “তাদের আন্দোলনে আমার কোনো সমর্থন নেই। তারা ৫০ হাজার, ৩০ হাজার টাকা বেতন দিতে পারে; আর মাত্র সাড়ে সাত শতাংশ ভ্যাট কেন দেবে না?”

এদিকে গত বুধবার রাজধানীর রামপুরায় ইস্ট ওয়েস্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিক্ষোভের সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হলে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিভিন্ন সড়ক আটকে বিক্ষোভ শুরু হয়। এই পরিস্থিতিতে সারা শহরে যানজট ছড়িয়ে পড়ায় নগরবাসীকে ব্যাপক ভোগান্তির মুখে পড়তে হয়।

টিউশন ফি’র ওপর ভ্যাট প্রত্যাহারের দাবি ও ঢাকায় শিক্ষার্থীদের হামলার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার বন্দরনগরী চট্টগ্রামেও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ জিইসি মোড়সহ আশপাশের এলাকায় দীর্ঘ সময় যান চলাচল বন্ধ থাকায় ব্যাপক ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে নগরবাসীকে।