২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খুলনায় গুলি করে মাছ কোম্পানির কর্মকর্তাকে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ খুলনায় মাছ কোম্পানির এক কর্মকর্তা দুর্বৃত্তের গুলিতে নিহত হয়েছেন। তার নাম ফারুক হোসেন মোল্লা (৪৪)। বুধবার রাত ১০টার দিকে জেলার রূপসা উপজেলার রহিমনগরের শেখ বাড়ি সংলগ্ন এলাকায় তিনি গুলিবিদ্ধ হন। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এদিকে বিএফএফইএ এক বিবৃতিতে এ হত্যাকা-ের নিন্দা জানিয়ে ঘাতকদের গ্রেফতার দাবি করেছে।

জানা গেছে, নিহত ফারুক হোসেন পূর্ব রূপসায় অবস্থিত ফ্রেশ ফুড নামক মৎস্য প্রক্রিয়াজাতকরণ প্রতিষ্ঠানের রিসিভ ইনচার্জ ছিলেন। তিনি চর মোসাব্বরপুর এলাকার মৃত আব্দুল খালেক মোল্লার ছেলে ও রূপসা উপজেলা বিএনপির দফতর সম্পাদক মনির হোসেনের ভাই। বুধবার রাতে বাড়িতে ফেরার পথে কাস্টমঘাট সংলগ্ন রহিমনগর শেখ বাড়ি এলাকায় একদল সন্ত্রাসী তার ওপর আক্রমণ করে ও গুলি করে পালিয়ে যায়। এর পর গুরুতর অবস্থায় তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। রূপসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেসবাহ উদ্দিন জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। কোম্পানিতে চিংড়ি সরবরাহকারী এক শ্রেণীর ব্যবসায়ীর সঙ্গে বিরোধের জের হিসেবে এ হত্যাকা- ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।

বিএফএফইএ ॥ এদিকে অবৈধভাবে পুশকৃত চিংড়ি গ্রহণ না করায় চিংড়ি কারখানার এক কর্মকর্তাকে খুন করা হয়েছে বলে বিবৃতিতে দাবি করেছে বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুড এক্সপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিএফএফইএ)। বিবৃতিতে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে ঘাতকদের গ্রেফতার দাবি করা হয়। নিহতের পরিবার ও ফ্রেশ ফুডস লিঃ কর্তৃপক্ষ জানায়, দীর্ঘদিন ধরে কিছু মুনাফালোভী চিংড়ি ব্যবসায়ী গ্রেড বাড়িয়ে দেয়া ও পুশ চিংড়ি গ্রহণ করতে ফারুককে চাপ দিয়ে হত্যাসহ নানা ধরনের হুমকি দিয়ে আসছিল। অন্যদিকে হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে বাংলাদেশ ফ্রোজেন ফুডস এক্সপোর্টার্স এ্যাসোসিয়েশন (বিএফএফইএ) খুলনা আঞ্চলিক কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় হত্যাকা-ের নিন্দা জানিয়ে সুষ্ঠু তদন্ত এবং দোষীদের গ্রেফতার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন তারা।