২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গফরগাঁওয়ে মা বাবা ভাইসহ গ্রেফতার ছয় ॥ ছেলেকে হত্যা

নিজস্ব সংবাদদাতা, গফরগাঁও, ১০ সেপ্টেম্বর ॥ ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ে ভাড়াটে খুনী দিয়ে নিজের ছেলেকে হত্যার ঘটনায় বাবা-মা, ভাই ও হত্যাকা-ে জড়িত প্রতিবেশী কাঠ মিস্ত্রিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তাদের দেয়া স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বৃহ¯পতিবার সকালে গাজীপুর সদরের বড়ুয়া এলাকার কলোনি থেকে ভাড়াটে খুনী আলমগীর ও ইউসুফ নামে দুই সহোদরকে গ্রেফতার করে পাগলা থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে ময়মনসিংহ জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

জানা যায়, উপজেলার পাইথল ইউনিয়নের পাইথল পশ্চিম পাড়া গ্রামের সুলতান মিয়ার ছেলে আজিজুল প্রায়ই তার বাবা-মা, ভাইকে অকথ্য ভাষায় গালাগালসহ মারধর করত, পাশাপাশি বাড়ির এক মেয়েকে শারীরিক নির্যাতন করত। এতে অতিষ্ঠ হয়ে এলাকার কাঠমিস্ত্রি নাজমুলের মাধ্যমে নিহত আজিজুলকে খুন করতে গাজীপুরের বড়ুয়া এলাকার ভাড়াটে খুনী দুই সহোদর আলমগীর ও ইউসুফকে সাত হাজার টাকার বিনিময়ে চুক্তিবদ্ধ করে। পরে নিহতের মা-বাবা, ভাই ও প্রতিবেশী কাঠমিস্ত্রির উপস্থিতিতে গত ৫ সেপ্টেম্বর রাতে গলা কেটে চোখ উৎপাটন করে আজিজুলকে হত্যা করা হয়। পরে খুনীদের ব্যবহৃত দুটি গেঞ্জি ও চাপাতির সূত্র ধরে গফরগাঁও সার্কেলের সিনিয়র এএসপি বিল্লাল হোসেন হত্যাকা-ে জড়িত থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে নিহত আজিজুলের বাবা সুলতান (৫৫), মা লাইলী বেগম (৪৮), ভাই এনামুল (২০) ও প্রতিবেশী কাঠমিস্ত্রি নাজমুলকে (২১) গ্রেফতার করে।

পাগলা থানার ওসি চাঁন মিয়া বলেন, ভাড়াটিয়া খুনী দুই সহোদর ইউসুফ ও আলমগীর হত্যার পূর্বে নিহতের মা-বাবা ও ভাইয়ের সাথে হত্যাকা-ের পরিকল্পনা করে। পরে তাদের উপস্থিতিতে আজিজুলকে হত্যার পর আজিজুলের মা-বাবার কাছ থেকে চুক্তির সাত হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।