১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সেরেনা-সিমোনাই ফেবারিট !

  • মহিলা এককের সেমিফাইনাল আজ, মুখোমুখি সেরেনাÑভিঞ্চি, পেনেত্তাÑসিমোনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে আজ কোর্টে নামবে চার তারকা। বর্তমান বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ তারকা সেরেনা উইলিয়ামসের প্রতিপক্ষ ইতালির রবার্টা ভিঞ্চি। অন্যদিকে ভিঞ্চিরই স্বদেশী ফ্লাভিয়া পেনেত্তা লড়বেন রোমানিয়ার দ্বিতীয় বাছাই সিমোনা হ্যালেপের বিপক্ষে।

বুধবার কোয়ার্টার ফাইনালের অন্য ম্যাচে বড় চমকটা দিয়েছেন ইতালির ফ্লাভিয়া পেনেত্তা। দুইবারের উইম্বল্ডন চ্যাম্পিয়ন পেত্রা কেভিতোভাকে হারিয়ে শেষ চারের টিকেট নিশ্চিত করেন তিনি। মৌসুমের শেষ মেজর টুর্নামেন্টের ২৬তম বাছাই পেনেত্তা এদিন ৪-৬, ৬-৪ এবং ৬-২ গেমে হারান পঞ্চম বাছাই পেত্রা কেভিতোভাকে। এই জয়ের ফলে রোমাঞ্চি পেনেত্তা। ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনেই নিজের উচ্ছ্বাসের কথা জানান তিনি। এ বিষয়ে ইতালিয়ান তারকা বলেন, ‘এই মুহূর্তে আমি খুবই আনন্দিত। আমি প্রতিটি বলের জন্যই লড়াই করেছি। জয়ের জন্য সম্ভাব্য সব চেষ্টাই করেছি এবং শেষ পর্যন্ত সফল হতে পেরেছি।’ ইউএস ওপেনের আগেই নিউ হ্যাভেন জিতেছিলেন পেত্রা কেভিতোভা। ফেবারিট হিসেবে কোর্টে নেমে শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলেছেন তিনি। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কোয়ার্টার ফাইনালেই থেমে গেল তার জয়রথ। ম্যাচ শেষে তাই হতাশা ঝরেছে উইম্বল্ডনের সাবেক চ্যাম্পিয়নের কণ্ঠে। তবে আনন্দে-উদ্বেলিত পেনেত্তা। টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের পাঁচ নাম্বারে থাকা কেভিতোভার বিপক্ষে যে তিনি জিতবেন তা ভাবতেই পারেননি, ‘আমি আসলে চিন্তাই করিনি যে এই বাধা পেরুতে পারব। এটা আসলেই অবিশ্বাস্য বিষয়।’

আরেকটি বিষয়ও অবিশ্বাস্য। টেনিসের উন্মুক্ত যুগে এবারই যে প্রথমবারের মতো ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে খেলছেন ইতালির দুই টেনিস তারকা! পেনেত্তার আগের দিনই মহিলা এককে ইউএস ওপেনের শেষ চারের টিকেট নিশ্চিত করেছেন রবার্টা ভিঞ্চি। চেষ্টায় যে আসলে সবই সম্ভব তাই প্রমাণ করলেন ভিঞ্চি। ৪৪তম প্রচেষ্টার পর প্রথমবারের মতো ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে উঠলেন তিনি। মঙ্গলবার তিনি ৬-৩, ৫-৭ এবং ৬-৪ গেমে ফ্রান্সের ক্রিস্টিনা মাদেনোভিচকে পরাজিত করে স্বপ্নের সেমিফাইনালের টিকেট কাটেন। সেমিফাইনালে তার প্রতিপক্ষ এখন সেরেনা উইলিয়ামস। টেনিসের স্বর্ণালী সময় কাটাচ্ছেন যিনি। কোয়ার্টারে বড় বোন ভেনাস উইলিয়ামসকে হারিয়ে শেষ চারের জায়গা নিশ্চিত করেন তিনি। প্রতিপক্ষ যেই হোক না কেন তা নিয়ে মোটেও চিন্তিত নন ভিঞ্চি। কারণ এই পরিস্থিতিতে তার কোন হারানোর নেই। তাই সেরেনার বিপক্ষে সেরাটাই ঢেলে দেবেন তিনি। সেই সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছেন সেমিতে সেরেনার বিপক্ষে আক্রমণাত্মক খেলবেন ভিঞ্চি, ‘তার বিপক্ষে ম্যাচে আমার কোন হারানোর নেই। তাই আমার স্বাভাবিক খেলাটাই খেলব এবং উপভোগ করব। আমি আমার খেলাটা খেলব অবশ্যই আক্রমণাত্মক খেলব।’

কিন্তু প্রতিপক্ষ যখন সেরেনা উইলিয়ামস তখন আক্রমণাত্মক কিংবা রক্ষণাত্মক কোন কিছুই কাজে আসার কথা নয়। কেননা ৩৩ বছর বয়সী সেরেনা এখন উড়ছেন। গত মাসে উইম্বল্ডন জয়ের পরই দ্বিতীয়বারের মতো ‘সেরেনা সøাম’ জয়ের রেকর্ড গড়েছেন। এখন নতুন মাইলফলকের সামনে দাঁড়িয়ে আছেন তিনি। বছরের শেষ মেজর শিরোপা জিততে পারলেই একই বছরে চার গ্র্যান্ডসøাম জিতে ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো ‘ক্যালেন্ডার সøাাম’ নিজের করে নেয়ার মাইলফলক স্পর্শ করবেন তিনি। এখন পর্যন্ত এই রেকর্ডটির মালিক হয়েছেন মাত্র তিনজন। তারই স্বদেশী মৌরিন কোনোলি ১৯৫৩ সালে এই কীর্তি গড়েন। অস্ট্রেলিয়ার মার্গারেট কোর্ট ১৯৭০ সালে এবং জার্মানির স্টেফি গ্রাফ ১৯৮৮ সালে একই বছরে সবকটি গ্র্যান্ডসøাম জিতেছিলেন। এ বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ফ্রেঞ্চ ওপেন এবং উইম্বল্ডন জয়ের পর ইউএস ওপেন শিরোপা জিতে স্টেফি গ্রাফদের পাশে বসতে মরিয়া সেরেনা। শুধু তাই নয়, ইউএস ওপেন জিতলে গ্রাফের সঙ্গে যৌথভাবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২২ গ্র্যান্ডসøাম জয়েরও রেকর্ড গড়বেন সেরেনা। ২৪ গ্র্যান্ডসøাম নিয়ে তখন তার সামনে থাকবেন শুধুই অস্ট্রেলিয়ান তারকা মার্গারেট কোর্ট।