১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আরচারিতে বাংলাদেশের তামিমুলের স্বর্ণ, নন্দিনীর ব্রোঞ্জপদক

  • কমনওয়েলথ যুব গেমস

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রথমবারের মতো অংশ নিয়ে যুব কমনওয়েলথ গেমসে লাল-সবুজের পতাকা উড়িয়েছেন আরচার তামিমুল ইসলাম। বৃহস্পতিবার রিকার্ভ বো এককের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফাইনালে তামিমুল হারান ভারতের নিশানাথ কুমাওয়াটকে। এছাড়া বালিকা বিভাগে বাংলাদেশের নন্দিনী খান স্বপ্না মালয়েশিয়ার মাজলান নুরামনিয়া হানিসসাকে হারিয়ে তাম্রপদক লাভ করেন। আরচারি এই দলের প্রশিক্ষক ছিলেন সাজ্জাদ হোসেন। এ প্রতিযোগিতায় আরচারির কল্যাণে বাংলাদেশ দলের অর্জন ১ স্বর্ণ ও ১ তাম্রপদক। সামোয়াতে অনুষ্ঠিত যুব কমনওয়েলথ গেমসে রিকার্ভ বো এককের তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ফাইনালে তামিমুল হারান ভারতের নিশানাথ কুমাওয়াটকে। তামিমুল সেমিফাইনালে টোঙ্গার আরচারকে হারিয়ে ফাইনালে ওঠেন। আরচারদের সাফল্যে অভিনন্দন জানিয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন এবং বাংলাদেশ অলিম্পিক এ্যাসোসিয়েশনের মহাসচিব সৈয়দ শাহেদ রেজা। কমনওয়েলথ ইয়ুথ গেমসে অংশ নিতে ১৪ সদস্যের বাংলাদেশ দল এখন সামোয়ায়। গেমস শেষ হবে শুক্রবার। গেমসে আরচারি ছাড়াও বাংলাদেশ অংশ নিচ্ছে এ্যাথলেটিক্স, বক্সিং, সাঁতার এবং স্কোয়াশ ডিসিপ্লিনে। বাংলাদেশ দলের সেফ ডি মিশন হিসেবে নেতৃত্ব দিচ্ছেন বাংলাদেশ অলিম্পিক এ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান মানু। গেমসের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পতাকা বহন করেন বক্সার রবিন মিয়া। গেমসে বাংলাদেশের আরচারি ইভেন্টে অংশ নেন তামিমুল ইসলাম, নন্দিনী খান স্বপ্না, এ্যাথলেটিক্সে আশরাফুজ্জামান (১০০ মিটার স্প্রিট) এবং তামান্না আক্তার (১০০ ও ২০০ মিটার স্প্রিট), বক্সিংয়ে রস্টকিব শেখ (৫৬ কেজি) এবং রবিন মিয়া (৫২ কেজি), স্কোয়াশ ইভেন্টে সাইফুল মিয়া (একক ও দ্বৈত) এবং রাকিন আজিজ (একক) এবং সাঁতারে আরিফুল ইসলাম (১০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোক, ৫০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোক ও ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইল) এবং সুরাইয়া আক্তার চুমকি (৫০ মিটার ব্যাকস্ট্রোক ও ৫০ মিটার ফ্রি স্টাইল)।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো ২০০৮ সালে ভারতের পুনেতে অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ ইয়ুথ গেমসে অংশগ্রহণ করে। ওই গেমসে ভারোত্তোলন ইভেন্টে বাংলাদেশের পক্ষে ফাইমা আক্তার ময়না তাম্রপদক লাভ করেছিল। ইতোমধ্যেই সে সাফলকে অতিক্রম করেছে বাংলাদেশ। এখন দেখার বিষয়, আজ প্রতিযোগিতার সমাপনী দিনে সাফল্যের ভা-ারে আর কোন পদক যুক্ত করতে পারে কি না বাংলাদেশের এ্যাথলেটরা।