২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

দ. কোরিয়ায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতের ওপর হামলাকারীর ১২ বছরের জেল

দ. কোরিয়ায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতের ওপর হামলাকারীর ১২ বছরের জেল

অনলাইন ডেস্ক ॥ দক্ষিণ কোরিয়ায় মার্কিন রাষ্ট্রদূতের ওপর হামলাকারীর বিরুদ্ধে আনীত হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ১২ বছরের কারাদন্ড দিয়েছে দেশটির একটি আদালত। হামলায় রাষ্ট্রদূতের মুখে গভীর ক্ষত সৃষ্টি হয় এবং সেখানে তার ৮০ টি সেলাই লাগে।

মার্কিন দূতের ওপর হামলাকারী কিম কি-জং (৫৬) এর ১৫ বছরের কারাদন্ড চেয়েছিলেন দ. কোরিয়ার প্রসিকিউটররা। গত মার্চে সিউলে একটি প্রাতঃরাশ অনুষ্ঠানে ছুরি নিয়ে ওই ব্যক্তি যুক্তরাষ্ট্রের দূত মার্ক লিপার্টের ওপর হামলা চালায়।

সিউল সেন্ট্রাল ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট রায়ে উল্লেখ করেছে, বিচার চলাকালে কিম তার কৃতকর্মের জন্য অনুশোচনা করেনি। বরং সে তার কর্মকান্ডকে যুক্তিসংগত প্রমাণ করার চেষ্টা করেছে।

দক্ষিণ কোরিয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সামরিক ও কূটনৈতিক মিত্র দেশের দূতের ওপর এ হামলা এবং এরপর ওই দূত তার রক্তমাখা মুখ চেপে ধরে হাসপাতালে যাচ্ছেন এমন চিত্র টিভি ফুটেজে দেখে গোটা দেশের মানুষ মর্মাহত হয়। দ. কোরিয়ায় আবেগময় রাজনৈতিক বিক্ষোভ সাধারণ ঘটনা। তবে এ ধরণের চরম সহিংসতামূলক কর্মকান্ড একটি দুর্লভ ঘটনা।

আদালত শুক্রবার কিমের উপস্থিতিতেই রায় দেয়। এ সময় কিমের পরনে নীল রঙের কারা পোশাক ছিল। রায় দেয়ার সময় তাকে কিছুটা আবেগপ্রবণ হয়ে পড়তে দেখা যায়।

এরপর আদালত থেকে তাকে একটি হুইলচেয়ারে বসানো হয়। মার্কিন দূতের ওপর হামলার পর তাকে নিয়ন্ত্রণ করার সময় সে পায়ে আঘাত পায়। সে সময় থেকে সে হুইল চেয়ার ব্যবহার করে।

পুলিশী জিজ্ঞাসাবাদে কিম বলেছে, লিপার্ট ছিলেন তার প্রতীকী লক্ষ্যবস্তু। বার্ষিক যুক্তরাষ্ট্র-দ. কোরিয়া সামরিক মহড়ার প্রতিবাদে সে এ হামলা করে। তবে স্বীকারোক্তি দেয়ার সময় হামলাকারী বারবার রাষ্ট্রদূতকে হত্যার কোন পরিকল্পনার কথা অস্বীকার করেন।

নির্বাচিত সংবাদ