২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পার্বতীপুরে সংখ্যালঘূ পরিবার বসত ভিটা হারাতে বসেছেন

পার্বতীপুরে  সংখ্যালঘূ পরিবার বসত ভিটা হারাতে বসেছেন

নিজস্ব সংবাদদাতা, পার্বতীপুর॥ নাপিত চ্যানা ঠাকুরের (৭০) এখন বড়ই দুর্দিন।তিনি প্রভাবশালীদের কূটচালে বসতভিটা হারানোর ভয়ে আতংকগ্রস্থ। পার্বতীপুর শহর থেকে ১২ কিলোমিটার দূরে মনম্মথপুর ইউনিয়নের দেগলাগঞ্জ হাটে তার বাড়ী। সরেজমিনে আজ শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে গিয়ে জানা যায়, ছেলে সন্তোষকুমার(৩৬), পুত্রবধূ পপিরানী শীল(২৬) ও নাতি পল্লব ঠাকুর(৬) এই নিয়ে চ্যানা ঠাকুরের ছোট সংসার ।পিতা লক্ষনঠাকুর এলাকার প্রয়াত জমিদার কাজী ছমিরউদ্দিনের বাসভবনে নাপিতের কাজ করতেন। জমিদারের সর্বশেষ বংশধর কুতুবউদ্দিন কাজীর চার ছেলে বাদল কাজী (৪৬), নুর ইসলাম কাজী (৪৩) নজরুল কাজী (৪০) ও মিজান কাজীর(৩০) একই দাগে ১.৫০ একর জমি রয়েছে । এ সুযোগ নিয়ে তারা চ্যানা ঠাকুরের সমুদয় জমি কেড়ে নিতে বিভিন্ন কূটকৌশল চালিয়ে যাচ্ছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা মোহাম্মদ হাসান জানান , কাজী পরিবারের সদস্যরা জামায়াত-বিএনপির সমর্থক। দুর্দান্ত প্রকৃতির । এখানে তাদের শাসন চলে। ৫ জানুয়ারী সংসদ নির্বাচনে কেন্দ্র দখল, অগ্নিসংযোগ করে তারা ত্রাস সৃষ্টি করেছিল । এ ব্যাপারে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।