২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এক বছর পর নিজ এলাকায় আমি আর রাজনৈতিক ব্যক্তি নই ॥ লতিফ সিদ্দিকী

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল, ১১ সেপ্টেম্বর ॥ সাবেক ডাক ও টেলিযোগযোগমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী বলেছেন, আমি আর এখন রাজনৈতিক ব্যক্তি নই। আওয়ামী লীগ থেকে আমাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। দলের সিদ্ধান্ত আমি মেনে নিয়েছি। টাঙ্গাইল-৪ কালিহাতীর শূন্য আসনের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগ ও শেখ হাসিনা যাকে মনোনয়ন দেবেন আমি এবং আমার অনুসারীরা তার পক্ষেই কাজ করব। তার ভাই বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর উপনির্বাচনে অংশ নেয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, আমার ভাই নেই, বাবা নেই, মা নেই, বোন নেই, জনগণই আমার সব। ব্যক্তি লতিফ সিদ্দিকীর অনেক কিছু আছে। কিন্তু রাজনৈতিক লতিফ সিদ্দিকীর জনগণ ছাড়া আর কিছু নেই। সুতরাং, রাজনৈতিক কোন কথা বলব না।

গত বছর ২৯ সেপ্টেম্বর নিউইয়র্কে টাঙ্গাইল সমিতি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে পবিত্র হজ ও তবলীগ জামায়াত নিয়ে আপত্তিকর বক্তব্য, কারাভোগ, দল থেকে বহিষ্কার এবং এমপি থেকে পদত্যাগের পর শুক্রবার দুপুরে দেলদুয়ার উপজেলার আটিয়ায় হযরত শাহানশাহ আদম কাশ্মীরীর মাজার জিয়ারত শেষে তিনি সাংবাদিকদের সঙ্গে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, নিউইয়র্কে প্রায় ৯০ মিনিটের দেয়া আমার বক্তব্যকে খ-িত, বিকৃত ও জোড়া দিয়ে মাত্র আড়াই মিনিট প্রচার করা হয়েছে। সাবেক এই মন্ত্রী মাজারে প্রধানমন্ত্রীর জন্য দোয়া কামনা করেন। পরে তিনি আটিয়া জামে মসজিদে জুমার নামাজ শেষে তার নিজ নির্বাচনী এলাকা কালিহাতী যান।

সাবেক এই মন্ত্রীর পেছনে সরকারী বা প্রশাসনিক কোন প্রটোকল না থাকলেও কালিহাতী উপজেলার সাবেক ভাইস-চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মোল্লা, উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নুরন্নবী সরকার, এলেঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোহাম্মদ খান, সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক আব্দুস সালাম, কালিহাতীর বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানসহ কয়েক শ’ নেতাকর্মী ও অনুসারী ‘জয় বাংলা’ সেøাগান দিয়ে তাকে স্বাগত জানান। তবে দেলদুয়ার উপজেলা আওয়ামী লীগ বা তার অঙ্গসংগঠনের কোন নেতাকর্মীকে এ সময় দেখা যায়নি।