১৬ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বিদেশী প্রতিবেদন

  • গোপনে ছবি তোলা মোবাইল পর্নো এ্যাপ নিয়ে আতঙ্ক

মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর অজান্তেই গোপনে আপত্তিকর ছবি তুলে তা ফাঁস করে দেয়ার হুমকি দেয় এমন এক এ্যাপ নিয়ে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। মার্কিন ইন্টারনেট সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠান ‘জেডস্কেলার’ জানিয়েছে, এই এ্যাপটি এরকম হুমকি দিয়ে ব্যবহারকারীর কাছ থেকে অর্থ দাবি করে। মূলত পর্ণোগ্রাফি দেখার উদ্দেশ্যে ‘এডাল্ট প্লেয়ার’ নামের এই এ্যাপটি অনেকে ডাউনলোড করেন। কিন্তু এই এ্যাপটি একবার ডাউনলোড করার পর এটি ফোনের সামনের ক্যামেরা দিয়ে গোপনে ব্যবহারকারীর ছবি তুলতে থাকে। এরপর এটি ফোন ‘লক’ করে দেয় এবং পাঁচশ’ ডলার দাবি করে একটি মেসেজ দেখায় স্ক্রিনে। এই দাবি পূরণ না করা পর্যন্ত ফোনটি আর সচল করা যায় না। এ ধরনের এ্যাপস, যেগুলো গোপন তথ্য ফাঁস করে দেয়ার হুমকি দিয়ে অর্থ দাবি করে, ‘র‌্যানসমওয়ের’ নামে পরিচিত। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০১৪ সালের পর এ ধরনের ‘র‌্যানসমওয়ের’ অনেক বেড়ে গেছে। এ ধরনের র‌্যানসমওয়ের থেকে রক্ষা পেতে বিশেষজ্ঞরা গুগল প্লেস্টোর ছাড়া অন্য কোন সাইট থেকে এ্যাপ ডাউনলোড না করার পরামর্শ দিয়েছেন। যদি কোন ইমেলের সঙ্গে এ্যাপ ডাউনলোড করার লিংক আসে, তাতে ক্লিক করার বিরুদ্ধে সতর্ক করে দিয়েছেন তারা। ‘এডাল্ট প্লেয়ার’ এ্যাপটি গুগল প্লেস্টোর থেকে ডাউনলোড করা যায় না। আর যাদের ফোনে ইতোমধ্যে ‘এডাল্ট প্লেয়ার’ ডাউনলোড হয়ে গেছে, তারা ‘সেফ মডে’ হ্যান্ডসেট রি-বুট করে এটি ডিলিট করার চেষ্টা করতে পারেন।

সুপার কম্পিউটারের

ওপর নিষেধাজ্ঞা

আরোপ করল চীন

চীন এরই মধ্যে ঘটা করে ঘোষণা দিয়েছে, জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে সকল প্রকার উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন মানুষহীন ড্রোন এবং কম্পিউটার রফতানি করা যাবে না। তবে বিশেষ প্রয়োজনে চীনের নিরাপত্তা সংস্থার অনুমতিক্রমে রফতানি করা যেতে পারে।

প্রতি সেকেন্ড আট টেরা ফ্লোটিং পয়েন্টসম্পন্ন করতে পারে এমন সুপার কম্পিউটার রফতানির ক্ষেত্রে প্রথমবারের মতো নিষেধাজ্ঞা যৌথভাবে জারি করল চীনের বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও জেনারেল কাস্টমস প্রশাসন। তবে দুই প্রতিষ্ঠানের কোন কর্মকর্তা এই নিষেধাজ্ঞা জারির ক্ষেত্রে কোন রকম বিশদ বর্ণনা দেননি। এসব উৎপাদিত পণ্য কিভাবে জাতীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থার জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়াল সে বিষয়ে কোন বর্ণনা বিশেষ কর্তৃপক্ষ প্রদান করেনি।

এই নিষেধাজ্ঞা জারির ঘোষণা দেয়ার পরপরই চীনের বিখ্যাত বাণিজ্যিক ড্রোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ডিজিআই টেকনোলজি কোম্পানির ভাইস প্রেসিডেন্ট শাও জিনহু গণমাধ্যমকে জানান, বিশ্বের শতকরা ৭০ ভাগ ড্রোন ও সুপার কম্পিউটার তার প্রতিষ্ঠান থেকে তৈরি ও বিক্রি হয়। তাই হঠাৎ করে জাতীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থায় হুমকি হবে এমন অজুহাত দেখিয়ে কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্তের ফলে ব্যবসাসফল প্রযুক্তি কোম্পানিগুলো বিশাল আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হবে, যা চীনের ক্রমবিকাশমান প্রযুক্তিশিল্পের জন্য মোটেও ভাল দিক নয়।

এই প্রসঙ্গে একটি খবর, বিশেষভাবে চীনের সামরিক নিরাপত্তা সংস্থা নড়েচড়ে বসে বলে অনুমান করা হচ্ছে। গত ১৫ জুলাই ভারতীয় সামরিক বাহিনী তাদের আকাশে একটি অবৈধ অনুপ্রবেশকারী ড্রোনকে গুলি করে নামায়। তারা সংবাদমাধ্যমকে জানায়, তাদের ধারণা এটি পাকিস্তান সামরিক বাহিনীর গোয়েন্দা নজরদারির কাজে ব্যবহার করা হচ্ছিল। এছাড়াও এর উড্ডয়ন ক্ষমতা ও বিশেষ বৈশিষ্ট্য দেখে ভারতীয় সামরিক বাহিনী অনুমান করে যে, এটি চীনের তৈরি করা ড্রোন।

গাজী আলিম আল রাজি

নির্বাচিত সংবাদ