২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কিছু সুবিধাভোগী নেতাই বিএনপির ক্ষতি করছেন ॥ গয়েশ্বর

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দলের নেতাকর্মীরাই বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে দিয়ে অপকর্ম করাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়। শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে খালেদা জিয়ার অষ্টম কারামুক্তি দিবস উপলক্ষে বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব) মাহবুবুর রহমান বলেন, সরকারের ব্যর্থতার কারণে দেশ সঙ্কটের দিকে এগোচ্ছে ।

গয়েশ্বর রায় বলেন, বিএনপির বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের কমিটি দেয়া হচ্ছে। আর এ কমিটিগুলো হচ্ছে মূলত পকেট কমিটি। বিএনপির সিনিয়র নেতারাই খালেদা জিয়াকে দিয়ে পকেট কমিটিগুলো দিচ্ছেন। তিনি বলেন, বিএনপির কিছু সুবিধাভোগী নেতাই দলের ক্ষতি করছেন। অন্য কেউ নয়।

খালেদা জিয়ার মামলা প্রসঙ্গে গয়েশ্বর বলেন, নিরপেক্ষ নির্বাচনে জনগণ যে রায় দেয় সেটা আদালতের রায়ের চেয়ে বড় রায়। তাই আদালতের রায়ে আমরা ভীত না। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ করে তিনি বলেন, খালেদা জিয়াকে ফাঁকি দেবেন না এবং নেত্রীর সঙ্গে বেইমানিও করবেন না, যা বলতে চান তা সরাসরি বলুন কিন্তু গোপনে কিছু করবেন না। প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আপনি অসংখ্য সাপ লালন-পালন করেছেন। তাই আপনি সাবধান থাকবেন।

বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু বলেন, খালেদা জিয়াকে রক্ষা করতে না পারলে বিএনপি ও দেশের অস্তিত্ব রক্ষা করা যাবে না। দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ করে তিনি বলেন, আর কত দিন আমরা পালিয়ে বেড়াব। কবে আমাদের ছাত্র, যুবক ও শ্রমিক সমাজ জেগে উঠবে। বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় কারাগারে দাঁড়িয়ে থাকতে হচ্ছে। এর চেয়ে অপমানের বিষয় আর কোন কিছু হতে পারে না। তাই নেতাকর্মীদের শুধু ঘরের ভেতর বসে সেøাগান দিলে হবে না। সময় এসেছে রাজপথে প্রতিরোধ গড়ে তোলার।

বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরউল্লাহ চৌধুরী বলেন, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় যদি খালেদা জিয়ার সাত বছরের জেল হয় তাহলে কি বিএনপির রাজনীতি বন্ধ হয়ে যাবে? এ বিষয়ে কি আপনারা আলোচনা করেছেন? আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান হয়। তাই এ আলোচনা করতে সমস্যা নেই। তিনি বলেন, বিএনপি নির্বাচনে জয়ী হয়ে ক্ষমতায় বসলেই কেবল তারেক রহমান দেশে আসতে পারবেন, অন্যথায় নয়।

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শাহ মোয়াজ্জেম হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেনÑ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমাজউদ্দীন আহমেদ, বিএনপির যুগ্মমহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন, যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, গণশিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক এ্যাডভোকেট মাসুদ আহমেদ তালুকদার, সহ-দফতর সম্পাদক শামীমুর রহমান শামীম, আসাদুল করিম শাহীন, মহিলা দলের সভাপতি নূরে আরা সাফা প্রমুখ।

দেশ সঙ্কটের দিকে এগোচ্ছে -মাহবুবুর রহমান ॥ সরকারের ব্যর্থতার কারণে দেশ সঙ্কটের দিকে এগোচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব) মাহবুবুর রহমান। তিনি বলেন, এ সরকার ছাত্র-শিক্ষকবান্ধব নয়। পে-স্কেল নিয়ে শিক্ষকরা অবহেলিত, ভ্যাট নিয়ে ছাত্রদের মধ্যে অসন্তোষ। দেশে গণতন্ত্র নেই তাই সরকারের প্রতি জনগণের আস্থা নেই। সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে জনমনে চরম অস্থিরতা বিরাজ করছে। শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে ‘সাউথ এশিয়া ইউথ ফর পিস এ্যান্ড প্রোসপারিটি সোসাইটি’ নামক একটি সংগঠন আয়োজিত ‘রোহিঙ্গা সমস্যা ও বাংলাদেশের নিরাপত্তা’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মাহবুবুর রহমান বলেন, দেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের একটি অশনিসঙ্কেত রয়েছে। এখান থেকে জঙ্গী উত্থানের সমূহ আশঙ্কা রয়েছে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধান করতে পারছে না। গণতন্ত্রহীন রাষ্ট্রে পররাষ্ট্রনীতি কখনও শক্তিশালী হতে পারে না। সরকারের পররাষ্ট্র নীতির দুর্বলতার কারণেই বাংলাদেশ-মিয়ানমার সম্পর্কের সঙ্কট কাটছে না। রোহিঙ্গা ইস্যু দ্বিপক্ষীয় বা আন্তর্জাতিকভাবে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হয়। অতীতের সরকার এ সমস্যার পুরোপুরি সমাধান করতে পারেনি, তবে অনেকটা পেরেছে। বর্তমান সরকারতো পুরোটাই ব্যর্থ হয়েছে। বর্তমান সরকার ছাত্র-শিক্ষকবান্ধব নয়। তাই তাদের সমস্যার দিকে সরকারের কোন খেয়াল নেই। ভ্যাট প্রত্যাহারের জন্য ছাত্ররা সারাদেশে আন্দোলন করছে। পে-স্কেল নিয়ে শিক্ষকরাও আন্দোলন করছে। শিক্ষকরা অবহেলিত, তাদের অপমান করা হচ্ছে। এতে আমরা উদ্বিগ্ন। বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর সরকার সাড়ে ৭ শতাংশ ভ্যাট আরোপ করেছে। কিন্তু শিক্ষার ওপর ভ্যাট আরোপ যৌক্তিক নয়।

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডাঃ জাফরউল্লাহ চৌধুরী বলেন, রোহিঙ্গা সমস্যা আগেই সমাধান হতো যদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র মিয়ানমারের স্বৈরশাসককে সুদৃষ্টিতে না দেখত। অবশ্য তারা একইভাবে সমর্থন করেছে বাংলাদেশের অনির্বাচিত সরকারকেও। তিনি বলেন, যেখানে ভারতের ৫ লাখ লোক ভিসা ছাড়াই বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করেছে, সেখানে মিয়ানমারের ৪০ হাজার রোহিঙ্গা নিয়ে এত মাথাব্যথার কী আছে।

আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেনÑ বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব) রুহুল আলম চৌধুরী, আয়োজক সংগঠনের চেয়ারম্যান এন ইসলাম, আহ্বায়ক এম মাহমুদ প্রমুখ।