২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আইনজীবীদের সহযোগিতা ছাড়া মামলাজট কমানো সম্ভব নয়

  • সেমিনারে এসকে সিনহা

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেছেন, মামলাজটের পেছনে শুধু আইনজীবী বা বিচারকরাই দায়ী নয়। জনবল সঙ্কট ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের অভাবও এজন্য দায়ী। তাই আইনজীবীরা আরও বেশি সহযোগিতা না করলে বিশাল মামলাজট কমানো সম্ভব নয়। শনিবার ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে ‘বিচারিক কার্যক্রমের সমন্বয়, সমস্যা ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, নির্বাহী বিভাগ আইন প্রবর্তন করে। কিন্তু পর্যাপ্ত জনবল ও অবকাঠামো সৃষ্টি করে না। যেমন অর্পিত সম্পত্তি প্রত্যর্পণ আইন এমন একটি আইন। এ আইনের অধীনে অনেক মামলা আছে, কিন্তু জনবল নেই। প্রধান বিচারপতি মামলাজটের পেছনে আইনজীবীদের মুলতবির আবেদনকেও দায়ী করেন। তিনি বিচারকদের উদ্দেশে বলেন, অনেক আইনজীবী মামলার কার্যক্রমের ওপর মুলতবি চান। যারা বার বার মুলতবির আবেদন নিয়ে আসেন, তাদের মামলার মুলতবি দেবেন না। আর আইনজীবীদের বলব, আপনারা জেলা জজদের সহযোগিতা করবেন। দুপুর তিনটার পরও আদালতের কার্যক্রমে অংশ নেবেন। আদালতের বেহাল দশার বর্ণনা দিতে গিয়ে সুরেন্দ্র কুমার সিনহা বলেন, আমাদের দেশে প্রায়ই বিদ্যুত সমস্যা থাকে। অনেক আদালতে দেখেছি, বিচারকাজ চলার সময় বিদ্যুত চলে যায়। এ সময় বিচারকরা ছোট একটি ফ্যান চালিয়ে গরম থেকে পরিত্রাণ পান। কিন্তু আইনজীবীদের অনেক কষ্ট হয়, যা কোনভাবে সহ্য করার মতো নয়।

কালো গাউন ছেড়ে দেয়ার সময় এসেছে বলেও মন্তব্য করেন প্রধান বিচারপতি। তিনি বলেন, আমাদের এখানে সব সময় কালো গাউন পরে থাকতে হয়। এ নিয়ম ইংল্যা- থেকে এলেও অনেক জায়গায় গাউন পরার প্রথা উঠে গেছে। এ নিয়ে আইনজীবী ও বার কাউন্সিলের সোচ্চার হওয়ার সময় এসেছে।

ইউএনডিপির সহযোগিতায় সেমিনারটির আয়োজন করেন ঢাকার বিচারিক আদালত। এতে উদ্বোধনী বক্তব্য দেন ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ এসএম কুদ্দুস জামান। সেমিনারে আলোচনায় অংশ নেন চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শেখ হাফিজুর রহমান, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মাহবুবুর রহমান সরকার, ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মোহাম্মদ কামরুল হোসেন মোল্লা, ঢাকার পুলিশ সুপার মোঃ হাবিবুর রহমান ও ঢাকা আইজীবী সমিতির সভাপতি মাসুদ আহমেদ তালুকদার।

সেমিনারে বক্তব্য প্রদান শেষে প্রধান বিচারপতি ঢাকার তিনটি বিচারিক আদালতের দৈনন্দিন কার্যতালিকার মোবাইল এ্যাপস উদ্বোধন করেন। এ এ্যাপসের মাধ্যমে এখন থেকে আদালতগুলোর দৈনন্দিন কার্যতালিকা ও মামলা নিষ্পত্তির তথ্য মোবাইলে জানা যাবে। আদালতগুলো হচ্ছে- ঢাকা জেলা ও দায়রা জজ আদালত, চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত ও চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সিজেএম) আদালত।