২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জহিরের দ্বারস্থ পাকিস্তান!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ডিসেম্বরে আরব আমিরাতে প্রস্তাবিত ভারত-পাকিস্তান সিরিজটা কি আদৌ হবে? বিশ্ব রাজনীতির খবর রাখেন এমন যে কেউই বলবেন, সে সম্ভাবনা কম। রাজনৈতিক নেতা থেকে শুরু করে ভারতের সাবেক তারকা ক্রিকেটারদের বক্তব্য, দুদেশের সীমান্ত এবং কূটনৈতিক পরিস্থিতির উন্নতি না হলে ‘ক্রিকেট নয়’। বিশেষ করে, সবার আগে পাকিস্তানী সন্ত্রাসীদের ভারতের অভ্যন্তরে তৎপরতা বন্ধ করতে হবে। কদিন আগে ইন্ডিয়ান বোর্ড (বিসিসিআই) সেক্রেটারি অনুরাগ ঠাকুর স্পষ্ট করে জানিয়ে দিয়েছেন, এই অবস্থায় দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নয়। পরিস্থিতির অবনতি দেখে ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসির দ্বারস্থ হচ্ছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। বর্তমানে আইসিসির প্রেসিডেন্ট আবার পাকিস্তানেরই জহির আব্বাস! পিসিবির চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খান বলেন, ‘জহির আব্বাসের সঙ্গে দেখা করে অনুরোধ জানিয়েছি, তিনি যেন ডিসেম্বরে প্রস্তাবিত সিরিজটি আয়োজনে ভারতকে প্রভাবিত করেন। ব্যক্তিগতভাবে আমি বিশ্বাস করি দ্বিপক্ষীয় ক্রিকেট দু’দেশের সম্পর্কোন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।’ শাহরিয়ার আরও যোগ করেন, ‘আইসিসির প্রেসিডেন্ট হিসেবে বিশ্ব ক্রিকেটে জহির একজন সম্মানিত ব্যক্তি। তাই তাকে এ ব্যাপারে সাহায্য করতে বলেছি। আমি আশাবাদী তিনি কিছু একটা করতে পারবেন।’ ২০০৮ সালে মুম্বাইর তাজ হোটেলে ভয়ঙ্কর সেই সন্ত্রাসী হামলার জন্য পাকিস্তানী জঙ্গীগোষ্ঠীকে দায়ী করে আসছে ভারত। সেই থেকে দু’দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় ক্রিকেট বন্ধ। অবশ্য ২০১২-২০১৩ সালে তিনটি ওয়ানডে খেলতে ভারতে এসেছিল পাকিস্তান।

ডিসেম্বরে নিরপেক্ষ ভেন্যু আমিরাতে ভারত-পাকিস্তান পূর্ণাঙ্গ সিরিজ হওয়ার কথা। কিন্তু চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে সেটিও প- হতে বসেছে। এই অবস্থায় আইসিসির দ্বারস্থ হলো পাকিস্তান। ওদিকে পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট আয়োজনে পিসিবিকে অভিনব এক থিওরি দিয়েছে আইসিসি। ক্রিস গেইল-গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের মতো বিশ্বতারকাদের নিয়ে একটি বিশ্ব-একাদশ গঠন করে পাঠাতে চাইছে সংস্থাটি। তবে এজন্য যে বিপুল পরিমাণ অর্থ ব্যয় করতে হবে, পিসিবির সেই সামর্থ্য নেই বললেই চলে!