২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাকার র‌্যাম্প মাতালেন বলিউডের সুস্মিতা

ঢাকার র‌্যাম্প মাতালেন বলিউডের সুস্মিতা

মনোয়ার হোসেন ॥ সুস্মিতা সেনের ক্যাটওয়াক আর কথার জাদুতে বিভোর হলো রাজধানীর দর্শক। বলিউড রূপসী মাতিয়ে গেলেন এদেশে তাঁর অনুরাগীদের। সাবেক এই মিস ইউনিভার্সের পদচারণায় আলোকিত হলো ঢাকার র‌্যাম্প। সুঠাম গড়নের দীর্ঘদেহী এই সুন্দরী ভক্তদের মাঝে ছড়ালেন উন্মাদনা। ৩৯ বছরের অনিন্দ্য সুন্দরীর রূপ-লাবণ্যের ঝলক দেখলেন অজস্র অনুরাগী। রবিবার বৃষ্টিসিক্ত শরত সন্ধ্যায় তিনি অংশ নেন একটি ফ্যাশন শোতে। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের হল অব ফেমে অনুষ্ঠিত ফ্যাশন শোটির আয়োজন করে ইউনিলিভার। আর ইউনিলিভারের ‘ট্রেসেমে’ নামে একটি শ্যাম্পুর বাজারজাতকরণ উপলক্ষে আয়োজন করা হয় এই ফ্যাশন শোর। সেই সূত্র ধরে শো স্টপারের ভূমিকায় বাংলাদেশের বিনোদনপ্রেমীদের মন মজালেন সাবেক এই বিশ্বসুন্দরী।

ঘড়ির কাঁটায় তখন রাত দশটা বিশ। উৎসুক অনুরাগীদের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে মঞ্চে এলেন সুস্মিতা সেন। মঞ্চের সবটুকু আলো ম্লান করে নিজেই যেন হয়ে ওঠেন আলোকরশ্মি। র‌্যাম্পে আবির্ভাবের সঙ্গে সঙ্গে তুমুল করতালিতে মুখরিত হলো মিলনায়তন। ক্যামেরার ফোকাসের মতোই অপেক্ষমাণ দর্শকদের চোখগুলো কেন্দ্রীভূত হলো সাবেক বিশ্ব সুন্দরীর ওপর। র‌্যাম্পে বিড়ালের হাঁটার ভঙ্গিমায় ছন্দোময় ক্যাটওয়াকের সঙ্গে অনবদ্য অভিব্যক্তিতে বিনোদনপ্রেমীদের হৃদয় মোহনায় আলোড়ন তুললেন লাল গাউন পরিহিত সুস্মিতা। কয়েক মিনিটের ক্যাটওয়াক শেষে মুখ খুললেন বাঙালী এই বিশ^ সুন্দরী। অনবদ্য বাংলা বচনে আরেকবার মোহাবিষ্ট করলেন ভক্তদের।

উপস্থাপিকা যখন সুস্মিতাকে জিজ্ঞেস করেন বাংলায় কথা বলবেন না ইংরেজীতে? তখন সুস্মিতা বলেন যেটা খুশি। কিন্তু মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে সুস্মিতা বাংলাতেই বলেন, ‘নমস্কার ঢাকা। মনে হচ্ছে যেন আমার নিজের বাড়িতেই এলাম।’ এমন কথা শুনে মিলনায়তনে থাকা সবার উৎসাহ যেন আরও বেড়ে গেল। সুস্মিতা আবার বলতে শুরু করলেন, ‘আমি বাঙালী এবং বাংলায় কথা বলতে পারি। ঢাকায় এ আমার তৃতীয়বারের মতো আসা। ঢাকা ও বাংলাদেশের সঙ্গে আমার যে সম্পর্ক সেটা অনেক নিবিড়।’ সুস্মিতা তার মিস ইউনিভার্স জেতার পর লস এ্যাঞ্জেলসের এক অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে বলেন, ‘সেই সময় বাংলাদেশের মানুষের আতিথেয়তা আমি সেখানে গিয়েও পেয়েছি। আমার মিস ইউনিভার্স জেতার সাফল্য সেলিব্রেট করার জন্য রাস্তায় রাস্তায় খাবার বিলি করা হয়েছিল।’

ফ্যাশন শোতে বাংলাদেশের মেয়েদের প্রশংসা করতে গিয়ে বলেন, ‘সবাই অসাধারণ করেছে। আমার মা আমাকে টিটান বলে ডাকে। তিনি সবসময় বলতেন তুমি মা দুর্গার মেয়ে। সবসময় দুর্গার শক্তি নিয়ে পথ চলবে। এখানে র‌্যাম্পে মেয়েদের দেখে সে কথাটাই আবার মনে পড়ে গেল।’ সুস্মিতা আরও জানালেন তাঁর বাবা তাকে গান শিখিয়েছিলেন। স্টেজে সুস্মিতা গান না গাইলেও রবীন্দ্রসঙ্গীতের কয়েকটি লাইন ‘আমি চিনি চিনি তোমারে ওগো বিদেশীনি, তুমি থাকো সিন্ধুপাড়ে ওগো বিদেশীনি’ আওড়ে যান। তারপর আবার সবাইকে নমস্কার জানিয়ে বিদায় নেন। সুস্মিতা আজ ভারতের উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগ করবেন বলে আয়োজক সূত্রে জানা যায়।

এর আগে এই ফ্যাশন শোর শুরুতেই গান পরিবেশন করে ব্যান্ড নেমেসিস। এই আয়োজনে ‘ট্রেসিমি’ ব্র্যান্ডটির উদ্বোধন করেন ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্র্যান্ড ডিরেক্টর জাভেদ আখতার। এরপরই শুরু হয় ফ্যাশন শো। গ্রীষ্ম, শরত, শীত ও বসন্ত এই চারটি ঋতুকে কেন্দ্র করে মনোমুগ্ধকর ফ্যাশন শোটি আয়োজন করা হয়। দেশের সেরা সব র‌্যাম্প মডেলদের সঙ্গে র‌্যাম্পের আরও অংশ নেন বিদ্যা সিনহা মিম, সাদিয়া ইসলাম মৌ ও মেহজাবিন চৌধুরী। ফ্যাশন শোর মাঝখানে আরেকবার গান পরিবেশনা নিয়ে আসেন এলিটা এ্যান্ড ফ্রেন্ডস।

নির্বাচিত সংবাদ