২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যৌতুকের দাবীতে নওগাঁর স্ত্রীকে হত্যার চেষ্টা

নিজস্ব সংবাদদাতা, নওগাঁ ॥ নওগাঁর মান্দায় পারিবারিক বিরোধের জের ধরে হাত-পা ও মুখ বেঁধে মৌসুমী আক্তার (২৫) নামে এক গৃহবধূকে নির্যাতন চালিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্মাণাধীন একটি বাড়ি থেকে সোমবার সকালে মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। নির্যাতিতা মৌসুমী উপজেলার কয়াপাড়া (সাহাপুর) গ্রামের শফিকুল ইসলামের স্ত্রী ও চকশ্রীকৃষ্ণ গ্রামের মোতাহার হাজারীর মেয়ে।

গৃহবধূ মৌসুমীর মা রেহেনা বিবি জানান, মেয়ে মৌসুমীকে প্রায় ৮ বছর আগে কয়াপাড়া গ্রামের বাদলের ছেলে শফিকুল ইসলামের সঙ্গে বিয়ে দেয়া হয়। বিয়ের পর জামাই শফিকুল যৌতুকসহ বিভিন্ন অজুহাতে মেয়ে মৌসুমীকে প্রায়ই নির্যাতন চালিয়ে আসছিল। রবিবার গভীর রাতে স্বামী শফিকুল দড়ি দিয়ে হাত-পা ও ওড়না দিয়ে মুখ বেঁধে তাকে নির্যাতন শুরু করে। এসময় মৌসুমী জ্ঞান হারিয়ে ফেলেন। এরপর তিনি আর কোনো কিছুই বলতে পারেননি।

প্রতিবেশি ফিরোজ, প্লাবনসহ আরো অনেকে জানান, সোমবার সকালে স্থানীয় সাইফুদ্দীন কাজির নির্মাণাধীন বাড়ির একটি খুঁটিতে বাঁধা অবস্থায় মুমূর্ষু মৌসুমীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এসময় তার হাত-পা দড়ি ও মুখ ওড়না দিয়ে বাঁধা ছিল। পারিবারিক বিরোধের জের ধরে মৌসুমীকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল বলে ধারণা করছেন স্থানীয়রা।

থানার অফিসার ইনচার্জ মোজাফফর হোসেন জানান, ঘটনায় এজাহার পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নির্বাচিত সংবাদ