১১ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আফগান জেলে তালেবান হামলা ॥ ৩৫০ বন্দীর পলায়ন

আফগানিস্তানের পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ গজনির এক কারাগারে হামলা চালিয়ে ৩৫০ বন্দীকে মুক্ত করে নিয়ে গেছে তালেবান জঙ্গীরা। সোমবার ভোরে চালানো এ হামলায় অন্তত চার পুলিশ সদস্য নিহত হয়েছে। খবর এএফপি ও বিবিসির।

গজনির ডেপুটি গবর্নর মোহাম্মদ আলি আহমাদি জানান, ‘এক জঙ্গী আত্মঘাতী বিস্ফোরণ ঘটিয়ে কারা ফটক উড়িয়ে দেয়। তারপর অন্যরা কারাগারে প্রবেশ করে। স্থানীয় সময় রাত আড়াইটার দিকে সামরিক পোশাক পরে ৬ জন তালেবান জঙ্গী গজনী কারাগারে হামলা চালায়। তারা কারাগারের প্রবেশ পথের কাছে একটি গাড়ি বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়, রকেট চালিত গ্রেনেড নিক্ষেপ করে এবং এরপর কারাগারে হামলা চালায়। হামলার পর ৩৫২ জন বন্দী পালিয়ে গেছে। তবে আফগান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ৪০০ বন্দী পালাতে সক্ষম হয়েছে। এ হামলার দায় স্বীকার করেছে তালেবান গোষ্ঠী।

তালেবানের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ এবং ডেপুটি গবর্নর আহমাদি উভয়েই তিন জঙ্গী নিহত হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন। ঘটনায় চার পুলিশ নিহত ও অপর সাত পুলিশ আহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন আহমাদি। হামলার পর মাত্র ৮০ জন বন্দী কারাগারটিতে আছেন। কারাগারে হামলা চালিয়ে তালেবান জঙ্গীরা কাদের মুক্ত করেছে এবং মুক্ত বন্দীদের কোথায় নিয়ে গেছে তাৎক্ষণিকভাবে সে সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। কারাগারের ভেতর থেকে হামলাকারীরা সহায়তা পেয়ে থাকতে পারে বলে জানিয়েছেন আহমাদি। তিনি আরও জানিয়েছেন, বন্দীদের অধিকাংশই তালেবান জঙ্গী, তাদের সঙ্গে কিছু লঘু অপরাধী ও মাদকাসক্তও ছিল। হামলাকারীরা সেনা বাহিনীর পোশাক পরে থাকার কারণে কারাবন্দীসহ সেখানে থাকা পুলিশ কেউই প্রথমে বুঝতে পারেননি কারাগারে প্রবেশকারীরা হামলাকারী তালেবান।

রাজধানী কাবুল থেকে ১২০ কিলোমিটার দূরে গজনি শহর। কারাগারটি শহরটি থেকে আরও পাঁচ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। কান্দাহার শহরের কারাগার থেকে ২০১১ সালে বাইরে থেকে খোঁড়া কয়েক শ’ মিটারের এক সুড়ঙ্গ দিয়ে প্রায় ৫০০ কারাবন্দী পালিয়েছিলেন। এসব বন্দীর অধিকাংশই ছিলেন তালেবান জঙ্গী।