১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মালয়েশিয়ায় পাকিস্তানীসহ গ্রেফতার ৩

  • ব্যাঙ্ককে বোমা হামলা

গত মাসে ব্যাঙ্ককে ভয়াবহ বোমা হামলার ঘটনা তদন্তের অংশ হিসেবে তিন জনকে গ্রেফতার করেছে মালয়েশিয়া পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে এক পাকিস্তানী ও দুই মালয়েশীয় রয়েছে। খবর এএফপির।

পুলিশের মহাপরিদর্শক খালিদ আবু বকর বলেন, ‘বোমা হামলার ঘটনা তদন্তে আমরা থাই পুলিশকে সহায়তা করছি। আমরা ধারণা করছি, গ্রেফতারকৃতরা তদন্তের বিষয়ে আমাদের সাহায্য করবে।’ স্থানীয় সংবাদপত্র দ্য স্টারের ওয়েবসাইটে সোমবার এ খবর জানানো হয়েছে। তাদেরকে কয়েক দিন আগে গ্রেফতার করা হয়েছে। তবে গ্রেফতারকৃতদের পরিচয় সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি। খালিদ বলেন, এই মুহূর্তে গ্রেফতারকৃতদের থাই পুলিশের কাছে হস্তান্তরের কোন পরিকল্পনা মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষের নেই। তিনি বলেন, ‘আমরা থাই কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কাজ করছি। প্রথমে আমাদের ঘটনা তদন্ত করতে হবে।’ ব্যাংককে গত ১৭ আগস্ট একটি মন্দিরে ভয়াবহ এ হামলায় ২০ জন নিহত হয়েছে।

অধিকাংশ জাপানী নিরাপত্তা বিলের বিরুদ্ধে

প্রাক-নির্বাচনী জরিপ

জাপানে অধিকাংশ নাগরিক সরকারের প্রস্তাবিত নিরাপত্তা বিলের বিরোধিতা করছে। একটি জাতীয় পত্রিকার নির্বাচনী জরিপে দেখা গেছে, ভোটারদের অন্তত অর্ধেকেরও বেশি সরকারের এই পরিকল্পনার বিরোধিতা করছে। চলতি মাসে আইনটি পাস করার কথা রয়েছে। আইনটি পাস হলে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো জাপানী সৈন্যরা বিদেশের মাটিতে যুদ্ধ করার অনুমতি পাবে। খবর প্রেসটিভি ও ইউনিইন্ডিয়ার।

জনসাধারণের একটি বিরাট অংশের বিরোধিতা শর্তেও প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের ক্ষমতাসীন জোট চাইছে ২৭ সেপ্টেম্বর সংসদ অধিবেশন শেষ হওয়ার আগেই নিরাপত্তা বিলটি পাস করতে। সংসদের উচ্চকক্ষ চলতি সপ্তাহেই ভোট গ্রহণ চাচ্ছে। এ বিষয়ে গত সপ্তাহের শেষের দিকে প্রাক-নির্বাচনী জরিপ চালায় আসাহি শিম্বুন। আর এ সপ্তাহের সোমবার প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়। তাতে দেখা যায়, নিরাপত্তা বিলটির বিরোধিতা করেছে ৫৪ শতাংশ লোক, সমর্থন করেছে ২৯ শতাংশ লোক এবং ৬৪ শতাংশ লোক মনে করে চলতি সংসদ থাকা পর্যন্ত বিলটি পাস করার দরকার হবে না। তবে উত্তরদাতাদের তিন-চতুর্থাংশ মনে করে জরিপটি যথেষ্ট অপর্যাপ্ত। সংসদের উচ্চকক্ষে আবের ক্ষমতাসীন গোষ্ঠীর অীধকাংশেরই সমর্থন রয়েছে এই বিলটির প্রতি। তবে বিলটি রুখতে সকল সম্ভাব্য করণীয় পন্থা অবলম্বন করার হুমকি দিয়েছে বিরোধীদলগুলো।

মিসরে নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ১২ পর্যটক নিহত

মিসরের নিরাপত্তা বাহিনী জঙ্গীদের বিরুদ্ধে অভিযান চলাকালে পর্যটকবাহী একটি গাড়িবহরে পুলিশ ও সেনাদের গুলিবর্ষণে মেক্সিকোর পর্যটকসহ ১২ জন নিহত হয়েছেন। ভুল করে পর্যটকবাহী ওই গাড়িবহরে গুলি করা হয়েছে বলে সোমবার এক বিবৃতিতে জানিয়েছে মিসরের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়। খবর বিবিসির।

রবিবার মরুভূমি এলাকায় এ ঘটনায় আরও ১০ মেক্সিকান ও মিসরীয় আহত হয়েছেন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে। ঘটনা তদন্তে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় জানিয়েছে। পশ্চিমাঞ্চলীয় মরুভূমিতে চারটি বাসে থাকা পর্যটকরা ওয়াহাতের ‘নিষিদ্ধ এলাকায়’ ঢুকে পড়েছিল। কিভাবে এবং কেন পর্যটকরা নিষিদ্ধ এলাকাটিতে প্রবেশ করেছিল তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছে মিসরীয় কর্তৃপক্ষ।