১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সূচকের উত্থানে পুঁজিবাজারে লেনদেন শেষ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ দেশের দুই বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সোমবার উত্থানে শেষ হয়েছে লেনদেন। তবে রবিবারের তুলনায় সোমবারে উভয় বাজারেই লেনদেনের পরিমাণ কমেছে। ঈদ-উল-আযহার আগের বিনিয়োগকারীদের নগদ টাকার চাহিদা বাড়ার কারণে শেয়ার কেনা-বেচার হারও কমেছে। দিনটিতে বেক্সিমকো ও স্কয়ার ফার্মার মতো বড় কোম্পানিগুলোর লেনদেনের আধিপত্যের দিনে সবচেয়ে বেশি লেনদেন করেছে ওষুধ এবং রসায়ন খাতটি। মোট লেনদেনের প্রায় ১৯ ভাগ দখল করেছে খাতটি। দ্বিতীয় অবস্থানে ছিল প্রকৌশল খাতটি। সার্বিকভাবে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ ছিল প্রায় ৭৩ কোটি টাকা।

বাজার পর্র্যালোচনায় দেখা গেছে, সকালে ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৩৭ কোটি টাকার। যা রবিবারের তুলনায় ২০ কোটি ৫৩ লাখ টাকা বা ৪ দশমিক ৪৯ শতাংশ কম। আগের দিন ডিএসইতে লেনদেন হয়েছিল ৪৫৭ কোটি ৫৪ লাখ টাকার শেয়ার। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩২২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৫টির, কমেছে ১৩৮টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৯টির শেয়ার দর। সকালে ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে ডিএসইর ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ১৭ পয়েন্ট বেড়ে ৪ হাজার ৭৮৬ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে এক হাজার ১৭৫ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ৬ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৮২৪ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হলো- বেক্সিমকো ফার্মা, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড, আমান ফিড লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, ইউনাইটেড এয়ারওয়েজ (বিডি), ইসলামী ব্যাংক, বিডি থাই অ্যালুমিনিয়াম, এসিআই, ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি লি: এবং সাইফ পাওয়ারটেক।

ডিএসইর দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : পাওয়ার গ্রিড, এক্সিম ব্যাংক মিউচুয়াল ফান্ড, পপুলার লাইফ মিউচুয়াল ফান্ড, ৭ম আইসিবি মিউচুয়াল ফান্ড, পূরবী জেনারেল, ইসলামী ব্যাংক, সাইফ পাওয়ার টেক, রিলায়েন্স ইন্স্যুরেন্স, স্ট্যান্ডার্ড ইন্স্যুরেন্স।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ইমাম বাটন, উসমানিয়া গ্লাস, রহিমা ফুড, মুন্নু স্টাফলারস, মুন্নু সিরামিক, আলহাজ টেক্সটাইল, মেঘনা কনডেন্স মিল্ক, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক, বিচ হ্যাচারী ও আনোয়ার গ্যালভানাইজিং।

এদিকে ঢাকার মতো দেশের অপর বাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও সব ধরনের সূচকই বেড়েছে। তবে সেখানেও বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ কমেছে। সকালে ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে এক্সচেঞ্জটিতে ২৭ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৬২ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৬৩৭ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৫১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১০১টির, কমেছে ১১৪টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৬টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : আমান ফিড, বেক্সিমকো ফার্মা, ইউনাইটেড এয়ার, দেশবন্ধু পলিমার, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, বিএসআরএম লিমিটেড, বেক্সিমকো, সাইফ পাওয়ার টেক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক ও বিডি থাই।

সাইফ পাওয়ারের সঙ্গে চট্টগ্রাম বন্দরের চুক্তি ॥ পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানি সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের (সিপিএ) সঙ্গে ১৮ কোটি ৪৫ লাখ টাকার একটি চুক্তি করেছে। এ চুক্তির আওতায় কোম্পানিটি বন্দরের ৪টি ক্রেন মেরামত, রক্ষণাবেক্ষণ এবং একটি এক্সাভেটর সরবরাহ করবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। ডিএসই সূত্রে আরও জানা গেছে, চুক্তির আওতায় আগামী ৬ বছর বন্দরের চারটি কালমার ব্র্যান্ড রাবার টায়ার গ্যান্ট্রি (আরটিজি) ক্রেন মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ করবে সাইফ পাওয়ারটেক। এজন্য বন্দর কর্তৃপক্ষ ১৭ কোটি ২৮ লাখ টাকা দেবে কোম্পানিটিকে। এছাড়া চুক্তির আওতায় চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষকে একটি হাইড্রলিক এক্সাভেটর সরবরাহ করবে সাইফ পাওয়ারটেক। আর এজন্য তারা পাবে ১ কোটি ২৮ লাখ টাকা।