১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রাজশাহী থেকে নির্বাচিত হলেন ৮৪ নারী

  • তোমার স্বপ্ন করো সত্যি

আত্মপ্রত্যয়ী নারীর স্বপ্নপূরণের পথে পাশে থাকার লক্ষ্য নিয়ে শুরু হয়েছিল ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের সামাজিক উন্নয়নমূলক উদ্যোগ, ফেয়ার এ্যান্ড লাভলী ফাউন্ডেশন আয়োজিত তোমার স্বপ্ন করো সত্যি ক্যাম্পেন। প্রাথমিকভাবে উচ্চশিক্ষা, কারিগরি শিক্ষা এবং ব্যবসা শুরু করতে আগ্রহী নারীদের কাছ থেকে আবেদনপত্র আহবান করা হয়। সারাদেশ থেকে সাত হাজার ৫৫০ আবেদনপত্র জমা পড়ে। আবেদনকারীদের মধ্য থেকে সবচেয়ে যোগ্য ৩৫৫ নারীকে নির্বাচন করে উচ্চশিক্ষার জন্য স্কলারশিপ, কারিগরি ট্রেনিংয়ের অনুদান বা ব্যবসা শুরুর মূলধন দেয়া হবে। এ লক্ষ্যে ছয় বিভাগে শুরু হয়েছে ইন্টারভিউ সেশন। গত ৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হয় রাজশাহী বিভাগের ইন্টারভিউ সেশন। এতে ৩৩৯ প্রার্থীর মধ্য থেকে যোগ্য হিসেবে নির্বাচিত করা হয় ৮৪ নারীকে। ইন্টারভিউয়ে বিচারকরম-লীর প্যানেলে ছিলেন ডক্টর মুরশিদা ফেরদৌস বিনতে হাবিব, অধ্যাপক, মনোবিজ্ঞান বিভাগ, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি), ডক্টর সাবিনা সুলতানা, সহযোগী অধ্যাপক, মনোবিজ্ঞান বিভাগ, রাবি, তানজিমা জোহরা হাবিব, সহযোগী অধ্যাপক, সমাজকর্ম বিভাগ, রাবি, জান্নাতুল রাব্বি রোশনী, সংবাদ সম্প্রচারক ও উপস্থাপিকা, বাংলাদেশ বেতার, নার্গিস আখতার বানু, শিক্ষিকা, নাটোর শিল্পকলা একাডেমি ও মনিরা রহমান, ভাইস প্রেসিডেন্ট, রাজশাহী আবৃত্তি পরিষদ।-বিজ্ঞপ্তি

কোস্টগার্ড আইনের খসড়া মন্ত্রিসভায় অনুমোদন

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ সর্বোচ্চ মৃত্যুদ-ের বিধান রেখে ‘বাংলাদেশ কোস্টগার্ড আইন ২০১৫’-এর খসড়া অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে এ অনুমোদন দেয়া হয়। বৈঠকের শুরুতে বেসরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের টিউশন ফির ওপর আরোপিত অতিরিক্ত ভ্যাট প্রত্যাহারের জন্য অর্থমন্ত্রীকে নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূইঞা সাংবাদিকদের বলেন, ‘উপকূলীয় এলাকা ও সমুদ্রসীমায় জলদস্যু, চোরাচালান প্রতিরোধসহ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে কোস্টগার্ড। কোস্টগার্ডকে একটি সুশৃঙ্খল ও কার্যকর বাহিনী গড়ে তুলতে এ নতুন আইন ভূমিকা রাখবে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘কোস্টগার্ড আইন ১৯৯৪’-এর মাধ্যমে এ বাহিনী পরিচালিত হচ্ছে। তবে প্রয়োগের সময় দেখা গেছে এ আইনটি অসম্পূর্ণ। একটি বিধিমালা করে অসম্পূর্ণতা পূরণের উদ্যোগ নেয়া হয়। পরে নতুন একটি আইন করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। ‘বাংলাদেশ কোস্টগার্ড আইন, ২০১৪’ আইনের খসড়া ‘বিজিবি’ এর নতুন আইনের আলোকে তৈরি করা হয়েছে।

খসড়ায় বিদ্রোহের জন্য সর্বোচ্চ মৃত্যুদ-ের বিধান রাখা হয়েছে জানিয়ে মোশাররাফ হোসাইন বলেন, বিদ্রোহ সংক্রান্ত অপরাধ সজ্ঞায়িত ও এর শাস্তির বিধান রাখা হয়েছে। আগের আইনে বিদ্রোহের জন্য সুনির্দিষ্ট কোন শাস্তি ছিল না। এছাড়া পলায়ন, অপরাধমূলক বলপ্রয়োগ হুমকি, ছুটি ছাড়া অনুপস্থিতি, অবাধ্যতা, সম্পত্তি সংক্রান্ত প্রতারণা, কর্তব্যে অবহেলা সুনির্দিষ্ট ও এ বিষয়ে শাস্তির বিধার রাখা হয়েছে খসড়া আইনে।