২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টি২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত শাস্ত্রী

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগামী বছর ঘরের মাটিতে টি২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত ভারতীয় ক্রিকেট দলের ‘টিম ডিরেক্টর’ থাকছেন রবি শাস্ত্রী। এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ইন্ডিয়ান বোর্ডের (বিসিসিআই) এ্যাডভাইসরি কমিটি। যে কমিটিতে রয়েছেন গ্রেট শচীন টেন্ডুলকর, সৌরভ গাঙ্গুলী ও ভিভিএস লক্ষণ। বাংলাদেশ সফরে ওয়ানডে সিরিজ হারে গদি কেঁপে উঠেছিল ‘ডিরেক্টর’ ও অন্তর্বর্তী কোচ শাস্ত্রীর। অনেকে ভেবেছিলেন পতন আসন্ন। কিন্তু দীর্ঘ ২২ বছর পর শ্রীলঙ্কার মাটিতে টেস্ট সিরিজ জয়ে আপাতত সেই শঙ্কা দূর হলো। ২০১৬ টি২০ বিশ্বকাপ পর্যন্ত বিরাট কোহলি-মহেন্দ্র সিং ধোনিদের ‘হেড স্যার’ হিসেবে শাস্ত্রীকেই বহাল রাখলেন শচীন-সৌরভরা। এই মুহূর্তে তাই বিদেশী কোচ খুঁজছে না বিসিসিআই। কেবল শাস্ত্রীর পাশাপাশি ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং তিন বিভাগের কোচ সঞ্জয় বাঙ্গার, ভরত অরুণ এবং শ্রীধরকেও রেখে দেয়া হচ্ছে। বিসিসিআই এক টুইটার বার্তায় এ খবর জানিয়েছে করেছে। ভারতের মাটিতে আগামী বছর ১১ মার্চ থেকে শুরু হবে টি২০ বিশ্বকাপ। ২০০৭Ñএ প্রথম আসরের পর ছোট্ট ভার্সনে সাফল্য নেই ক্রিকেটের মোড়লদের। চলবে ৩ এপ্রিল পর্যন্ত। এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ১৬ দল নিয়ে এটি অনুষ্ঠিত হবে। আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ দশের সঙ্গে চার সহযোগী দেশ অংশ নেবে। শাস্ত্রীর জন্য টি২০ বিশ্বকাপ হবে সত্যিকারের চ্যালেঞ্জ। কারণ শ্রীলঙ্কায় কোহলির নেতৃত্বে সাফল্য এলেও, ওয়ানডে-টি২০’র অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। অর্থাৎ ভিন্ন ঘারনায় তাকে ভিন্ন মেজাজের সব খেলোয়াড়দের সামলাতে হবে! শাস্ত্রীর হাতে এখন দুটি আলাদা দল, দুজন আলাদা অধিনায়ক, যাদের স্টাইল সম্পূর্ণ আলাদা। কেবল দুই অধিনায়ক বা তাদের স্টাইল ম্যানেজ করা নয়, শাস্ত্রীকে দলের বাকি সদস্যদের মানসিক অবস্থাটাও বুঝতে হবে। যা মোটেই সহজ কাজ নয়। তার ওপর সময় খুব অল্প। হয়ত এমনও দেখা যাবে, ৩০ দিনের মধ্যে ভিন্ন অধিনায়ক নিয়ে মাঠে নামবে ভারত! বছরের শুরুতে অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ডে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে আনুষ্ঠানিকভাবে ডিরেক্টরের দায়িত্ব পান শাস্ত্রী। কোচ ডানকান ফ্লেচারের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ না বাড়ালে বাংলাদেশ সফরে অন্তর্বর্তী দায়িত্ব পালন করেন তিনি। বিসিসিআইয়েও আসে ব্যাপক পরিবর্তন। শোনা যাচ্ছিল কোচ হয়ে আসছেন শচীন বা সৌরভ, এসেছিল রাহুল দ্রাবিড়ের নামও। তবে জাগমোহন ডালমিয়ার বোর্ডে উপদেষ্টা বা এ্যাডভাইসরি পদে জায়গা হয় এই সব গ্রেটদের।