১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শীর্ষ দশে ইউএস ওপেন চ্যাম্পিয়ন ফ্লাভিয়া পেনেত্তা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দুর্দান্ত নৈপুণ্যে প্রদর্শন করেই বছরের চতুর্থ গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্ট ইউএস ওপেনের শিরোপা জিতেন ইতালির ফ্লাভিয়া পেনেত্তা। টুর্নামেন্টের ২৬তম বাছাই ফ্লাভিয়া পেনেত্তা শিরেপা জয়ের লড়াইয়ে হারিয়েছেন তারই স্বদেশী অবাছাই রবার্টা ভিঞ্চিকে। কিন্তু ক্যারিয়ারের প্রথম গ্র্যান্ডসøাম জিতেই টেনিসকে বিদায় বলে দেন ৩৩ বছর বয়সী এই টেনিস তারকা। এর ফলে চলতি বছর শেষেই র‌্যাকেট তুলে রাখবেন তিনি। তবে ক্যারিয়ারে ইউএস ওপেন জয়ের ফল পাবেন না তা তো হতে পারে না। যে কারণেই ডব্লিউটিএ কর্তৃক প্রকাশিত সর্বশেষ র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী ৮ নাম্বার জায়গাটি দখল করেন তিনি। তবে ফাইনালে হেরেও ১৯ ধাপ এগিয়েছেন রবার্টা ভিঞ্চি। বর্তমানে তার অবস্থান ১৯। মৌসুমের শেষ মেজর টুর্নামেন্টে বড় চমকটা উপহার দিয়েছিলেন এই ভিঞ্চিই। সেমিফাইনালে তিনি টেনিসের কিংবদন্তি সেরেনা উইলিয়ামসকে হারিয়ে দিয়ে ফাইনালের টিকেট কাটেন। কিন্তু সেরেনাকে হারানোর পর আর এক ম্যাচও জিততে পারেননি তিনি। তবে তাতে কী? ফাইনালের মঞ্চে উঠেই নতুন ইতিহাস গড়লেন ভিঞ্চি। টেনিসের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো অল ইতালিয়ান ফাইনাল খেলে তারা। যা ইতালির টেনিস ইতিহাসেরই অনন্য এক অর্জন। আর ভিঞ্চিকে হারিয়ে বিশ্বের তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে বেশি বয়সে প্রথম গ্র্যান্ডসøাম জিতেন পেনেত্তা। বেশি বয়সে গ্র্যান্ডসøাম জয়ী বাকি দুই টেনিস খেলোয়াড় হলেন আন্দ্রেস গিমিনো এবং কেন রোসওয়াল। স্প্যানিশ টেনিস তারকা আন্দ্রেস গিমিনো ৩৪ বছর ২৯৩ দিনে ফ্রেঞ্চ ওপেন জয়ের স্বাদ পেয়েছিলেন। আর অস্ট্রেলিয়ার কেন রোসওয়াল ফ্রেঞ্চ ওপেন জিতেছিলেন ৩৩ বছর ২২০ দিনে। ফ্লাভিয়া পেনেত্তা ইউএস ওপেন জিতেন ৩৩ বছর ১৯৯ দিনে। এই শিরোপা জয়ের ফলে র‌্যাঙ্কিংয়ে পেনেত্তা-ভিঞ্চির উন্নতি ঘটলেও অপরিবর্তীত রয়েছেন সেরেনা উইলিয়ামস এবং সিমোনা হ্যালেপরা। বিশ্ব টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি সেরেনা উইলিয়ামসের সামনে এবার ক্যালেন্ডার সøাম জয়ের সুযোগ ছিল। কিন্তু ইতালিয়ান খেলোয়াড়রা শেষ পর্যন্ত আর তা হতে দেয়নি। তারপরও র‌্যাঙ্কিংয়ে কোন পরিবর্তন ঘটেনি তার। ১১,৫০১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছেন ২১ গ্র্যান্ডসøাম জয়ের মালিক সেরেনা উইলিয়ামস। দুইয়ে থাকা সিমোনার পরই তৃতীয় স্থানটি দখল করে রেখেছেন রাশিয়ার মারিয়া শারাপোভা।