১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হবিগঞ্জ ও মাদারীপুরে সংঘর্ষ ॥ পুলিশসহ আহত ২৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, হবিগঞ্জ, ১৫ সেপ্টেম্বর ॥ নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে যান চলাচল ও তা বন্ধের জের ধরে মঙ্গলবার সকালে হবিগঞ্জের উপজেলা বাহুবল হাইওয়ে সড়কের হাফিজপুরে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে হালিম নামে পুলিশের কনস্টেবলসহ আহত হয়েছে অন্তত ১৫ জন। এ সময় অন্তত এক ঘণ্টা মহাসড়কে সকল প্রকার যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে ঈদমুখী যাত্রীরা চরম ভুগান্তিতে পড়ে। পুলিশ জানায়, ঈদ-উল-আযহাকে সামনে রেখে সড়ক নিরাপত্তায় সকাল ১০টার দিকে ওই স্থানে পুলিশ চেকপোস্ট বসিয়ে সিএনজি অটোরিক্সা চলাচলে বাধা দেয়। এ সময় গাড়ির চালকরা আসছে ঈদ পর্যন্ত তাদের অটোরিক্সা চালানোর অনুমতি আছে বলে দাবি করে। পুলিশ অনুমতিপত্র দেখাতে বললে তাতে ব্যর্থ হয়ে উভয়ের মধ্যে তুমুল বাগ্বিত-ার ঘটনা ঘটে। এ খবর দ্রুত স্থানীয় মিরপুর বাজার সিএনজি অটোরিক্সা স্ট্যান্ডে পৌঁছলে শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে ওঠে। এক পর্যায়ে লাঠিসোটা হাতে বহু শ্রমিক ৩০-৩৫টি অটো রিক্সাযোগে ওই স্থানে পৌঁছে পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়।

নিজস্ব সংবাদদাতা মাদারীপুর থেকে জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন। সোমবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে সদর উপজেলার দত্ত কেন্দুয়া ইউনিয়নের বাহাদুরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন বিমলা বাড়ৈ, সেতু বাড়ৈ, আশিষ বাড়ৈ, সুপ্রিয়া বাড়ৈ, সাধন ভক্ত, বিষ্ণু ভক্ত, ঝড়ু ভক্ত, দুর্গা ভক্ত, বামন ভক্ত, কাজল ভক্ত।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, বাহাদুরপুর গ্রামের মনোরঞ্জন বাড়ৈর ছেলে সম্রাটের সঙ্গে বিকেলে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে একই এলাকার সাধন ভক্তের কথা কাটাকাটি হয়। এরপর সন্ধ্যায় দেশী অস্ত্র নিয়ে উভয়পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে নারী ও শিশুসহ আহত হয় অন্তত ১০ জন। আহতদের মাদারীপুর সদর হাসাপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।

সিলেটে দুই গ্রামবাসী

স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট অফিস থেকে জানান, সোমবার রাত ৯টায় সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার হরিপুর বাজারে দুই গ্রামবাসীর মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছে। গুলি ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে রাত আড়াইটার দিকে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয় পুলিশ। সংঘর্ষে গুরুতর আহত ১০ জনকে ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্থানীয় সূত্র জানায়, এদিন বিকেলে হরিপুর বাজারে একটি দোকানে জুতো ক্রয় নিয়ে দোকানী ও ক্রেতাদের মধ্যে কথা কাটাকাটি এবং হাতাহাতি হয়। এরই জের ধরে রাত ৮টার দিকে উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের বালিপাড়া ও হেমু মাঝপাড়া গ্রামের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় বাজারে দোকান-পাট ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনা ঘটে বলে জানান স্থানীয়রা। সংঘর্ষ চলাকালে সিলেট-তামাবিল সড়কে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এতে ওই সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়।

নির্বাচিত সংবাদ