২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে ‘সাফ সুজুকি কাপ’

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় ফুটবল প্রতিযোগিতা সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের নাম বদলে গেল। দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবল আসরের নতুন নাম ‘সাফ সুজুকি কাপ।’ এ নামেই আগামী ২৩ ডিসেম্বর থেকে ৩ জানুয়ারি ভারতের কেরলে অনুষ্ঠিত হবে এ প্রতিযোগিতার নবম আসর। এই প্রথম সাফের টাইটেল স্পন্সর হলো সুজুকি মোটর কর্পোরেশন। তাদের আগ্রহেই টুর্নামেন্টের নাম বদলেছে সাউথ এশিয়ান ফুটবল ফেডারেশনকে (সাফ)। সাফের সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিন এবং সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল টুর্নামেন্টের নাম পরিবর্তনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সালাউদ্দিন বলেন, ‘সাফের স্পন্সর স্বত্ব ওয়ার্ল্ড স্পোর্টস গ্রুপের (ডব্লিউএসজি)। তারাই এ স্পন্সর সংগ্রহ করেছে। বর্তমানে সাফের কার্যক্রমে বড় ধরনের পরিবর্তন এসেছে। গতি বেড়েছে। টুর্নামেন্ট ও কার্যক্রম বেড়েছে। দক্ষিণ এশিয়ার ফুটবল উন্নয়নে সাফের ভূমিকা গর্ব করার মতো। এ বছর আমরা টাইটেল স্পন্সর হিসেবে সুজুকির মতো প্রতিষ্ঠান পেয়েছি। আমাদের সামনে তাকাতে হবে। আশা করি সুজুকি দীর্ঘদিন দক্ষিণ এশিয়ার সবচেয়ে বড় এ ফুটবল টুর্নামেন্টের সঙ্গে থাকবে।’

এর আগেও সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে টাইটেল স্পন্সর ছিল। ২০০৯ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত ষষ্ঠ আসরের নাম ছিল ‘বঙ্গবন্ধু সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ।’ এবার সুজুকি টাইটেল স্পন্সর হয়ে টুর্নামেন্টের নামই বদলে দিল। যদিও নাম পরিবর্তনে আপত্তি তুলেছিলেন সাফের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল হক হেলাল। ‘আমি বলেছিলাম টুর্নামেন্টের নাম ‘সুজুকি সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ’ রাখতে। কিন্তু সুজুকি তাতে রাজি হয়নি। তারা যে কটি দেশে ফুটবল টুর্নামেন্টের টাইটেল স্পন্সর, সবগুলোর নামই একই রকম। তাছাড়া যে নামেই হোক, টুর্নামেন্ট জমজমাট হলে এবং মান বৃদ্ধি পেলেই ফুটবলের লাভ। কেরলে ত্রিবান্দ্রমের যে কমপ্লেক্সে টুর্নামেন্ট হবে, সেটা একটি বেসরকারী কমপ্লেক্স। ওই রাজ্যে ফুটবল খুবই জনপ্রিয়। আশা করছি বেশ জমবে নতুন নামের এ টুর্নামেন্ট’Ñ বলেন সাফের সাধারণ সম্পাদক হেলাল। দক্ষিণ এশিয়ার এ ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হয়েছিল ১৯৯৩ সালে ‘সার্ক গোল্ডকাপ’ নামে। অংশ নিয়েছিল ভারত, শ্রীলঙ্কা, নেপাল ও পাকিস্তান। ১৯৯৫ সালে অনুষ্ঠিত টুর্নামেন্টের নাম ছিল ‘সাউথ এশিয়ান গোল্ডকাপ।’ ওই আসর থেকে অংশ নিয়ে আসছে বাংলাদেশ। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের যাত্রা শুরু ১৯৯৭ সালে। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরে অংশ নিয়েছিল ভারত, বাংলাদেশ, নেপাল, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ও মালদ্বীপ। ২০০৩ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত তৃতীয় আসর থেকে টুর্নামেন্টে যোগ হয় আফগানিস্তান ও ভুটান। তারপর থেকে ৮ দেশ নিয়েই আয়োজন হয়ে আসছে এ ফুটবল টুর্নামেন্ট।