১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মেসিকে হটিয়ে ফের শীর্ষে রোনাল্ডো

মেসিকে হটিয়ে ফের শীর্ষে রোনাল্ডো

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ রীতিমতো গোলের নেশায় মত্ত ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। টানা ৮ ম্যাচ গোলহীন থাকার পর দুই ম্যাচেই ৮ গোল করেছেন রিয়াল মাদ্রিদের পর্তুগীজ সুপারস্টার। স্প্যানিশ লা লিগায় এস্পানিওলের বিপক্ষে পাঁচ গোল করার পর এবার উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের প্রথম ম্যাচেও করেছেন তিন গোল।

মঙ্গলবার রাতে মাদ্রিদের সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে ইউক্রেনের ক্লাব শাখতার ডোনেস্কের বিপক্ষে রিয়াল মাদ্রিদের ৪-০ গোলের জয়ে রোনল্ডো করেন রেকর্ড গড়া হ্যাটট্রিক। এর ফলে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে ফের এককভাবে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ড গড়েছেন সি আর সেভেন। ৭৭টি করে গোল করে গত মৌসুমে একাই কাতারে থেকে মিশন শেষ করেছিলেন দুই মহাতারকা মেসি ও রোনাল্ডো। এবার মৌসুমের প্রথম দিনেই রেকর্ডটি এককভাবে নিজের করে নিয়েছেন রিয়াল তারকা। তবে বুধবার রাতে লিওনেল মেসিও পাল্টা জবাব দেয়ার সুযোগ পেয়েছেন।

গত কয়েক মৌসুম ধরেই মেসি ও রোনাল্ডোর মধ্যে চলছে ব্যক্তিগত লড়াই। চ্যাম্পিয়ন্স লীগেও একই অবস্থা বিরাজ করছে। গত মৌসুমে কয়েকবার দু’জন দু’জনকে ছাড়িয়ে যান। শেষ পর্যন্ত মৌসুম শেষ হয় অভিন্ন অবস্থানে থেকে। শাখতারের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করে মেসিকে ছাড়িয়ে আবারও চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সর্বোচ্চ গোলদাতাদের তালিকায় এককভাবে শীর্ষে উঠে এসেছেন রোনাল্ডো। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে রোনাল্ডোর গোল এখন ৮০। ৭৭ গোল নিয়ে মেসি আছেন তালিকার দ্বিতীয় স্থানে। মেসিকে ছাড়ানো রোনাল্ডোর সামনে এখন একটি ক্লাব রেকর্ড ছোঁয়ার হাতছানি। এস্পানিওলের বিপক্ষে ৫ গোল করে রাউল গঞ্জালেসকে ছাড়িয়ে লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদের সর্বোচ্চ গোলদাতা হন তিনি। আরেকটি গোল করতে পারলে সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে রিয়ালের হয়ে রাউলের সর্বোচ্চ ৩২৩ গোল করার রেকর্ডও ছুঁয়ে ফেলবেন তিনি। দুই গোল করলে ছাড়িয়ে যাবেন সবাইকে।

রোনাল্ডো তার পেশাদার ফুটবল ক্যারিয়ারে ৩৬ বার এক ম্যাচে তিন বা ততোধিক গোল করার কীর্তি গড়েন। এর মধ্যে ৩৩ বারই তিনি এই কীর্তি গড়েন রিয়ালের জার্সি গায়ে। সব মিলিয়ে ক্যারিয়ারে ৩১ বার করেন শুধু হ্যাটট্রিক। দুইবার করেন পাঁচ গোল করে, আর তিনবার করেন চার গোল। সর্বশেষ চার দিনে এটি রোনাল্ডোর দ্বিতীয় হ্যাটট্রিক। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে নিজের তৃতীয় হ্যাটট্রিকটি তিনি পূরণ করেন দারুণ এক হেডের গোলে। বাকি দুটো গোল করেন পেনাল্টি থেকে।

টানা দুই ম্যাচে প্রতিপক্ষের জালে গোলবন্যা করলেও মটিতে পা রেখেছেন রোনাল্ডো। এর কৃতিত্ব তিনি দিচ্ছেন সতীর্থদেরই। ম্যাচ শেষে রোনাল্ডো বলেন, আমি অবশ্যই খুব খুশি। আমি ধন্যবাদ জানাতে চাই আমার সতীর্থদের। তারা আমার আত্মবিশ্বাস ফেরাতে দারুণ অবদান রেখেছে। তৃপ্ত সি আর সেভেন বলেন, প্রাক-মৌসুমে আমরা ভাল করতে পারছিলাম না। তবে আমরা জানতাম প্রাক-মৌসুমে ভাল করার থেকেও গুরুত্বপূর্ণ লা লিগা ও চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শুরুটা ভাল করা। লা লিগায় আমাদের শুরুটা হয়তো ভাল ছিল না। কিন্তু আমরা নিজেদের গুছিয়ে নিয়েছি। চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শুরুটা সত্যিই দুর্দান্ত হয়েছে।

প্রিয় শিষ্যের প্রশংসা করে রিয়াল কোচ রাফায়েল বেনিতেজ বলেন, ক্রিশ্চিয়ানোর মানটা আমি বুঝি। সে এটা অনুশীলনে এবং ম্যাচে দেখিয়ে দেয়। সে বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়। তুখোড় ফর্মে থাকলেও দুই ম্যাচ আগেই রোনাল্ডোকে সইতে হয়েছে কড়া সমালোচনা। যে কারণে শাখতারের বিপক্ষে ম্যাচের পর উগরে দিয়েছেন নিজের ক্ষোভ। অভিমানে কথাই বলেননি স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে। বলেন কেবল স্পেনের বাইরের সাংবাদিকদের সঙ্গে। এ প্রসঙ্গে রোনাল্ডো বলেন, আগে খারাপ খেলোয়াড় ছিলাম। এখন ভাল।

কারণ দুই ম্যাচে আট গোল করেছি। আমরা খুব ভাল অবস্থায় আছি। দলের এ চেষ্টাকে তুলে ধরতেই হবে।