২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সবার আগে ক্রিস গেইল

  • আলোচিত পাকিস্তান টি২০ লীগে খেলবেন কেভিন পিটারসেন, তিলকারতেœ দিলশান, ব্রেন্ডন ম্যাককুলামের মতো তারকা ক্রিকেটার

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কিছুদিন ধরে আলোচনা চলছিল টি২০ ঘরানার পাকিস্তান সুপার লীগে (পিএসএল) খেলবেন বিশ্বের নামকরা সব ক্রিকেটার। তাতে সবার আগে চুক্তিবদ্ধ হলেন রঙ্গিন পোশাকের আকর্ষণীয় ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল। ক্যারিবিয়ান ব্যাটিং-দৈত্যকে অন্তর্ভুক্তির আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) নির্বাহী কমিটির প্রধান নাজাম শেঠী। ‘গেইলের মতো শীর্ষ তারকা ক্রিকেটার ভক্তদের জন্য বড় আকর্ষণ। তারা থাকলে টুর্নামেন্টের আকর্ষণ বাড়ে, একসঙ্গে বাণিজ্যিক মূল্যও বাড়ে।’ বলেন তিনি।

স্বল্পদৈর্ঘীয় ক্রিকেটে বিশ্বের অন্যতম চাহিদাসম্পন্ন খেলোয়াড় গেইলের স্বত্ব ব্যবস্থাপনা সংস্থাও চুক্তির সত্যতা নিশ্চিত করেছে। কেবল গেইল একাই নন, ড্যারেন সামি, ডোয়াইন ব্রাভো, কাইরেন পোলার্ড, সুনীল নারাইনের মতো ওয়েস্ট ইন্ডিয়ান তারকাসহ বিশ্বের প্রায় ২৫ ক্রিকেটার পিসিবির সম্মতিপত্রে স্বাক্ষর করেছেন বলেও সংবাদে জানানো হয়েছে। পাকিস্তানের স্থানীয় ক্রিকেটার মিলিয়ে সংখ্যাটা ৮০। সব মিলিয়ে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া আলোচিত এই টুর্নামেন্টে তারার মেলাই বসতে যাচ্ছে। স্থানীয় প্রভাবশালী দৈনিক ডনও এমন খবর দিয়েছে। আগামী বছর ৪ থেকে ২৪ ফেব্রুয়ারি কাতারের রাজধানী দোহায় প্রস্তাবিত ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিক্তিক টি২০ আসরটি হওয়ার কথা, যার প্রাইজমানি ধরা হয়েছে ১০ লাখ মার্কিন ডলার।

গেইল ছাড়া শ্রীলঙ্কার তিলকারতেœ দিলশান, নিউজিল্যান্ডের গ্রান্ট ইলিয়টের মতো মাঠ কাঁপানো সব ক্রিকেটার। সম্ভাব্য ক্রিকেটারদের মধ্যে আছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের- পোলার্ড, সুনিল নারাইন, ডোয়াইন ব্রাভো, ডোয়াইন স্মিথ ও স্যামুয়েল বদ্রী। শ্রীলঙ্কার- দিলশান, থিসারা পেরেরা ও অজন্তা মেন্ডিস। নিউজিল্যান্ডের- ইলিয়ট, জেমস ফ্রাঙ্কলিন। দক্ষিণ আফ্রিকার- রিচার্ড লেভি, রবিন পিটারসেন, অস্ট্রেলিয়া- ব্র্যাড হজ। ইংল্যান্ডের- কেভিন পিটারসেন টিম ব্রেসনান ও মাইকেল কারবেরি। এমনকি বাংলাদেশের দুই বড় তারকা এই আয়োজনে অংশ নেবেন বলে পাকিস্তানী সংবাদ মাধ্যমের ইঙ্গিত। হয় তো বা সেই দুজন হতে পারেন সাকিব-আল হাসান ও তামিম ইকবাল।

ইন্ডিয়ান আইপিএল, বাংলাদেশের বিপিএল, ওয়েস্ট ইন্ডিজে ক্যারিবিয়ান লীগসহ বিশ্বের অনেক দেশের ঘরোয়া টি২০ লীগ বেশ জনপ্রিয়। ঠিক একই আদলে একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক টুর্নামেন্টে আয়োজনের জন্য গত কয়েক বছর ধরে চেষ্টা করে আসছে পাকিস্তান। গেইলের চুক্তির মধ্য দিয়ে সেটি আলোর মুখ দেখতে যাচ্ছে। সব মিলিয়ে যতদূর এগিয়েছে তাতে দারুণ খুশি পিসিবির নির্বাহী প্রধান।

তবু হাল ছাড়ছেন না আজমল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সাঈদ আজমলের ক্যারিয়ার কী শেষ? প্রশ্নটা জোরেশোরেই উঠেছে। তবে হাল ছাড়ছেন না তিনি। অবসরের গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়ে আজমল বলেন, ‘আমি একজন লড়াকু ক্রিকেটার। আর লড়াই করেই নিজের জায়গা পুনরুদ্ধার করতে চাই।’ গত বছর আগস্টে নিষিদ্ধ হওয়ার আগে দলটির তিন ভার্সনেই সেরা বোলার ছিলেন আজমল। এপ্রিলে বাংলাদেশ সফরে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দলে ফিরেছেন। কিন্তু এ্যাকশন শুধরে পাকিস্তানী অফস্পিনার যেন নিজের ছায়া হয়ে গেছেন! এক সময় বিশ্বের তাবত সব ব্যাটসম্যানদের ঘুম হারাম করা আজমল নিজেই হারিয়ে গেছেন! ঘরের মাটিতে জিম্বাবুইয়ের বিপক্ষে, শ্রীলঙ্কা সফরে ডাকা হয়নি। বুধবার আরব আমিরাতে আসন্ন ইংল্যান্ডে বিপক্ষে সিরিজের জন্য ঘোষিত প্রাথমিক দলেও ঠাঁই হয়নি তার। বয়স ৩৮ ছুঁই, ছুঁই। মাঝে ইংলিশ কাউন্টি এবং পাকিস্তানের ঘরোয়া ম্যাচেও ছিলেন অনুজ্জ্বল। সব মিলিয়ে অনেকের মতে ক্যারিয়ারের শেষের পথে আজমল। দল ঘোষণার পর পাকিস্তানের প্রধান নির্বাচক হারুন রশিদ, প্রধান কোচ ওয়াকার ইউনুস এবং টেস্ট অধিনায়ক মিসবাহ-উল হকের বক্তব্যে পরিষ্কার, তরুণ লেগস্পিনার ইয়াসির শাহ এবং স্পিনের তার সঙ্গী জুলফিকার বাবরের নৈপুণ্যে দারুণ খুশি তারা। আজমলকে নিয়ে একদমই আগ্রহ নেই তাদের! ২০০৮ সালে ৩১ বছর বয়সে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখা স্পিনার ৩৫ টেস্ট, ১১৩ ওয়ানডে ও ৬৪ টি২০ যথাক্রমে ১৭৮, ১৮৪ ও ৮৫টি করে উইকেট নিয়েছেন।

ইংল্যান্ড স্টাফে মাহেলা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বিষয়টা আগে থেকেই আলোচনায় ছিল। সেটি চূড়ান্ত রূপ পেল। আরব আমিরাতে পাকিস্তানের বিপক্ষে আসন্ন সিরিজের জন্য ইংল্যান্ড দলে ব্যাটিং পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেয়া হয়েছে লঙ্কান তারকা মাহেলা জয়াবর্ধনেকে। যিনি গত বিশ্বকাপ খেলে সকল ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর নেন। ইংল্যান্ডের বর্তমান কোচ ট্রেভর বেইলিস একসময় শ্রীলঙ্কার দায়িত্বে ছিলেন। তখন থেকে মাহেলার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক। উপমহাদেশের চেনা কন্ডিশনে পাকিস্তান-বধের ছক কষতে তাই লঙ্কান গ্রেটের স্মরণাপন্ন ইংলিশরা। পরামর্শক হিসেবে সাবেক ইংল্যান্ড অলরাউন্ডার পল কলিংউডও থাকবেন।