১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রিয়াল মাদ্রিদের শুরু গোল বন্যায়

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ উড়ন্ত জয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লীগে মিশন শুরু করেছে রিয়াল মাদ্রিদ। মঙ্গলবার রাতে নতুন মৌসুমের প্রথম দিনে আসরের রেকর্ড সর্বোচ্চ দশবারের চ্যাম্পিয়নরা ৪-০ গোলে পরাজিত করে দশজন নিয়ে খেলা ইউক্রেনের ক্লাব শাখতার ডোনেস্ককে। সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচে রিয়ালের হয়ে হ্যাটট্রিক করেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। অপর গোলটি করেন ফরাসী স্ট্রাইকার করিম বেনজেমা।

গ্রুপের আরেক ম্যাচে ফরাসী ক্লাব প্যারিস সেইন্ট-জার্মেইন ২-০ গোলে হারায় সুইডেনের মালমোকে। পিএসজির হয়ে গোল করেন এডিনসন কাভানি ও এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। দারুণ মিশন শুরু করেছে আরেক স্প্যানিশ ক্লাব এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। ‘সি’ গ্রুপের ম্যাচে এ্যান্টোনিও গ্রিজম্যানের জোড়া গোলে অতিথি এ্যাটলেটিকো ২-০ গোলে পরাজিত করে স্বাগতিকে তুরস্কের ক্লাব গালাতাসারেকে। গ্রুপের আরেক ম্যাচে একই ব্যবধানে পর্তুগালের বেনফিকা হারায় কাজাখস্তানের আস্টানাকে।

সান্টিয়াগো বার্নাব্যুতে শাখতারের গোলরক্ষক আন্দ্রি পিটোভের অমার্জনীয় ভুলের সুযোগে ৩০ মিনিটে বেনজেমার গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল। মিডফিল্ডার টারাস স্টিপানেকো ৫০ মিনিটে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ত্যাগ করলে বাকি সময়টা শাখতারকে ১০ জন নিয়ে খেলতে হয়। রেফারির এই সিদ্ধান্তে অবশ্য সন্তুষ্ট হতে পারেননি শাখতার কোচ মিরসিয়া লুসেকু। তবে ম্যাচের আধা ঘণ্টা পরে গ্যারেথ বেলের ইনজুরি রিয়ালকে কিছুটা ভাবিয়ে তোলে। কাফ মাসেলের সমস্যার কারণে ৩১ মিনিটে ওয়েলসের এই তারকা মাঠ ছাড়তে বাধ্য হন। গত বছরও প্রায় একই সমস্যায় পড়েছিলেন ওয়েলস অধিনায়ক। প্রায় এক বছর ধরে ইউক্রেনের রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে শাখতার তাদের ঘরের মাঠ ডোনেস্ক থেকে দূরে আছে। তাছাড়া ব্রাজিলিয়ান দুই তারকা ডগলাস কোস্তা ও লুইজ আদ্রিয়ানোকে ছেড়ে দিয়ে দলের শক্তিও অনেকটা খর্ব হয়েছে। এরপরও রিয়ালকে বেশ ভালই প্রতিরোধ করেছিল ইউক্রেনের দলটি। পুরো সময় সমানে সমানে লড়াই করেছে তারা। কিন্তু চার গোলই তারা একপ্রকার উপহার দিয়েছে রিয়ালকে! প্রথম গোলে গোলরক্ষকের ব্যর্থতা, দ্বিতীয় ও তৃতীয় গোলে ডিফেন্ডারদের ব্যর্থতা এবং চতুর্থ গোলেও ডিফেন্ডারদের ব্যর্থতায় বড় হারের স্বাদ পেতে হয় তাদের। স্টিপানেকো লালকার্ড দেখার আগ পর্যন্ত শাখতার ভালমতোই লড়াই করে। কিন্তু সে মাঠ ছাড়লে সুযোগ নেয় গ্যালাক্টিকোরা। স্টিপানেকোর লালকার্ডের পর পেনাল্টি থেকে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন রোনাল্ডো। এই গোল করেই মেসিকে টপকে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেরা গোলদাতা হন সি আর সেভেন। এরপর ৬৩ মিনিটে আরেকটি পেনাল্টি এবং ৮১ মিনিটে হেডে তৃতীয় গোল করে হ্যাটট্রিক পূরণ করেন রোনাল্ডো।

এই ম্যাচে শুধু গ্যারেথ বেলই নয়, ইনজুরি আক্রান্ত হয়েছেন রিয়ালের দলীয় অধিনায়ক রামোস কাঁধের ইনজুরিতে ভোগেন। ২৯ বছর বয়সী এ সেন্টারব্যাক ৫৯ মিনিট পর্যন্ত মাঠে ছিলেন। পরে তার জায়গায় খেলেন স্প্যানিশ ডিফেন্ডার নাচো ফার্নান্দেজ।

নিজেদের মাঠে মালমোর বিপক্ষে চতুর্থ মিনিটেই এগিয়ে যায় পিএসজি। নতুন দলের হয়ে প্রথম গোল করেন আর্জেন্টিনার এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া। শুরুতেই এগিয়ে যাওয়া পিএসজি দাঁড়াতেই দেয়নি বাছাইপর্ব পার হয়ে আসা মালমোকে। তবে প্রথমার্ধে আর গোল পায়নি স্বাগতিকরা। একের পর এক আক্রমণে মালমোর রক্ষণভাগকে ব্যস্ত রাখলেও এই সময়ে আর অতিথিদের প্রতিরোধ ভাঙতে পারেনি তারা। বিরতির পর ৬১ মিনিটে দ্বিতীয় গোল পায় পিএসজি। হেডে বল জালে জড়ান উরুগুয়ের এডিনসন কাভানি।