১৮ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নয়ীম গহরের শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ ‘জন্ম আমার ধন্য হলো মাগো’, ‘নোঙ্গর তোলো তোলো সময় যে হলো হলো’ কিংবা ‘পূবের ঐ আকাশে সূর্য উঠেছেসহ অসংখ্য গানের প্রণেতা নয়ীম গহর। মুক্তিযুদ্ধের সময় কালজয়ী এ সব লিখে মুক্তিযোদ্ধাসহ উজ্জীবিত করেছিলেন দেশের স্বাধীনতাকামী নাগরিকদের। বার্ধক্যজনিত নানা রোগে আক্রান্ত এই মুক্তিযোদ্ধা। কয়েক বছর ধরে হাসপাতাল থেকে বাসা, বাসা থেকে হাসপাতাল, এভাবেই বেঁচে আছেন এই গীতিকবি। নয়ীম গহরের ছেলে আন্দালিব গহর বুধবার দুপুরে জনকণ্ঠকে বলেন, আমার বাবা এখন উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে ৫ এর আই সেমি ক্যাবিনে আছেন। বাবার শারীরিক অবস্থা খুবই খারাপ। তাঁকে হাসপাতালের চারজন ডাক্তার দেখেছেন। প্রতিদিন ফিজিও থেরাপি ও ড্রেসিংসহ নানা রকম ব্যবস্থা করতে হচ্ছে। তিনি আরও জানান, ২০০০ সালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সার্বিক সহযোগিতায় তার বাবার ওপেন হার্ট সার্জারি হয়েছিল। এর কিছুদিন পর থেকে নানা অসুস্থতায় ভুগছেন। বিভিন্ন হাসপাতালে দফায় দফায় চিকিৎসা হয়েছে তার। তিনি আরও জানান, গত ১৩ সেপ্টেম্বর বাবাকে সাভারের সিআরপি হাসপাতালে নেয়া হয়। বিভিন্ন কারণে সেখানে ভর্তি করা সম্ভব হয়নি। ছয় মাস আগে স্ট্রোক করার কারণে তার স্মৃতিশক্তি লোপ পেয়েছে। নয়ীম গহরের মেয়ে অভিনেত্রী ইলোরা গহর বলেন, আমার বাবা খুবই অবস্থাসম্পন্ন পরিবারের সন্তান। যতদিন সামর্থ্য ছিল মানুষের পাশে থেকেছেন। এখন তিনি গুরুতর অসুস্থ। দেশের জন্য তার অনেক অবদান আছে। পরিবারের পক্ষ থেকে যথা সম্ভব চেষ্টা করা হচ্ছে। তার এই সঙ্কটে দেশবাসী ও রাষ্ট্র এগিয়ে আসবে এটাই প্রত্যাশা। গানের মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রেরণা যুগিয়েছিলেন তিনি। তিনি মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট গ্রহণ করেননি। ২০১২ সালে তাকে স্বাধীনতা পদক দেয়া হয়।