২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুন্সীগঞ্জে যৌতুক না পেয়ে শিক্ষিকা স্ত্রীকে পিটিয়ে জখম ॥ শ্রীঘরে স্বামী

মুন্সীগঞ্জে যৌতুক না পেয়ে শিক্ষিকা স্ত্রীকে পিটিয়ে জখম ॥ শ্রীঘরে স্বামী

স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ শিক্ষক স্বামীর যৌতুকের দাবি মেটাতে না পারায় নির্যাতনের শিকার হলেন শিক্ষিকা জাকিয়া সুলতানা। স্ত্রীকে পিটিয়ে এখন শ্রীঘরে শিক্ষক দুলাল মৃধা। ঘটনাটি ঘটেছে কামারগাঁও এলাকায়।

পুলিশ ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, চার বছর আগে কামারগাঁও চৌধুরী বাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক দুলাল মৃধার (৩৮) সঙ্গে পার্শ্ববর্তী আঃ বারী খা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা জাকিয়া সুলতানার (৩১) বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকেই দুলাল যৌতুকের জন্য জাকিয়াকে চাপ দিতে থাকে। দুলাল মৃধা বিভিন্ন সময় জাকিয়াকে শারীরিকভাবেও নির্যাতন করে। মাস সাতেক আগে জাকিয়া নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে বাবার বাড়িতে চলে আসেন। পরে উপজেলা শিক্ষক নেতারা শিক্ষা অফিসে বসে সালিশের মাধ্যমে বিষয়টি মীমাংসা করে এবং জাকিয়াকে স্বামীর সংসারে ফেরত পাঠান। তিন মাস আগে দুলাল মৃধা যৌতুকের জন্য ফের বেপরোয়া হয়ে ওঠে। পাঁচদিন আগে জাকিয়ার ওপর চরম নির্যাতন চালায় দুলাল মৃধা। জাকিয়াকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে সে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। এই দম্পতির দুই বছরের একটি কন্যা সন্তান আছে।

নির্যাতনের অভিযোগ এনে জাকিয়া স্বামী দুলাল মৃধা, শাশুড়িসহ ছয়জনকে আসামি করে শ্রীনগর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। গত পরশু দিন শ্রীনগর থানা পুলিশ দুলাল মৃধাকে গ্রেফতার করে আদালতে হাজির করলে বিচারক তাকে জেলহাজতে পাঠান।

ওসি মোঃ ইয়ারদৌস হাসান জানান, জাকিয়া সুলতানার ভাই জুয়েল অভিযোগ করেছেন দুলালকে গ্রেফতারের পর থেকে উপজেলা শিক্ষক সমিতির নেতা ও স্থানীয় প্রভাবশালী কয়েকজন মামলা উঠিয়ে নেয়ার জন্য তাদের চাপ দিচ্ছেন। অন্যথায় জাকিয়া কিভাবে চাকরি করে তা দেখে নেবেন বলে তারা হুমকি দিচ্ছেন।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া