২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

উত্তর কোরিয়াকে পরমাণু অস্ত্র বানাতে দেব না ॥ কেরি

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি তার দেশের অবস্থান স্পষ্ট করে বলেছেন; আমরা উত্তর কোরিয়াকে এক পরমাণু অস্ত্রধারী দেশ হিসেবে মেনে নেব না। তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়া এক পরমাণু চুক্তি আবার চালু করার ঘোষিত সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করে গেলে একে গুরুতর পরিণতির সম্মুখীন হতে হবে। আগে পিয়ং ইয়ং দীর্ঘদিন নিষ্ক্রিয় করে রাখা ঐ ইয়াংবাই ওন চুক্তিটি আবার চালু করছে বলে জানায়। এটি পরমাণু অস্ত্র তৈরির উপযোগী প্লুটোনিয়াম উৎপাদন করতে সমর্থ। উত্তর কোরিয়া একটি রকেট উৎক্ষেপণেরও হুমকি দেয়। এ পদক্ষেপকে আন্তর্জাতিক দৃষ্টিতে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রযুক্তির পরীক্ষা হিসেবে দেখা যায়। খবর গার্ডিয়ান ও সিএনএনের।

কেরি বলেন, ইরানের ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা যেমন কাজ করেছিল, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেত্রে তা তেমন কাজ নাও করতে পারে। কিন্তু তিনি উত্তর কোরিয়াকে কখনও পরমাণু অস্ত্রের অধিকার হতে দেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ার করে দেন। তিনি বুধবার ওয়াশিংটনে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলছিলেন। তিনি সতর্ক করে দেন যে, যদি উত্তর কোরিয়া আঞ্চলিক উদ্বেগের মাত্রা বৃদ্ধি করে এমন এবং ঐ অঞ্চলকে আরও অনিরাপদ করে তোলে এমন দায়িত্বজ্ঞানহীন উস্কানি দেয়া থেকে বিরত না থাকে এবং যদি সে এর আন্তর্জাতিক বাধ্যবাধকাতা পালন করতে অস্বীকার করে, তাহলে গুরুতর পরিণতির সৃষ্টি হবে। যদি উত্তর কোরিয়া এর পরমাণু ও ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচীর ওপর আরোপিত নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে যেতে থাকে, তাহলে যুক্তরাষ্ট্র কি করতে পারে, সে প্রশ্নের জবাবে কেরি বলেন, কিম জং-উবের সরকার এরই মধ্যে কূটনৈতিক দিক দিয়ে এক ঘরে হয়ে পড়েছে। উত্তর কোরিয়া এক সাহায্যের বিনিময়ে-নিরস্ত্রীকরণ চুক্তির আওতায় ২০০৭ সালে ইয়ং বাইওন চুল্লিটি গুটিয়ে রেখেছিল। কিন্তু দেশটি ২০১৩ সালে এর সর্বশেষ পরমাণু পরীক্ষার পর আবার চুল্লিটির সংস্কার করতে শুরু করে। ছয়টি দেশ ঐ চুক্তিতে সই করেছিল।