১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

২০০০ সালের পর থেকে ম্যালেরিয়ায় মৃত্যুর হার ৬০ শতাংশ হ্রাস

বিশ্বব্যাপী ম্যলেরিয়ায় মৃত্যুর হার ২০০০ সালের পর ৬০ শতাংশ কমে গেছে। এ রোগ মোকাবেলায় রোগ নির্ণয় পদ্ধতির উন্নতি এবং ব্যাপক মশারি বিতরণ এই হ্রাসের কারণ। ১৫ বছর আগে, বিশ্বে প্রায় ২৬ কোটি ২০ লাখ লোক ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়। এদের মধ্যে প্রায় আট লাখ ৪০ হাজার লোক মারা যায়। খবর এএফপির।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ডাব্লিউএইচও ও জাতিসংঘ শিশু সংস্থার (ইউনিসেফ) এক যৌথ প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৫ সালের অনুমিত হিসেবে বিশ্বে প্রায় ২১ কোটি ৪০ লাখ লোক ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হয়। এদের মধ্যে চার লাখ ৩৮ হাজার লোক মারা যায়। ডাব্লিউএইচওর মহাপরিচালক মার্গারেট চ্যান বলেন, বিশ্বব্যাপী ম্যালেরিয়া নিয়ন্ত্রণ গত ১৫ বছরে জনস্বাস্থ্য রক্ষার ক্ষেত্রে একটি বিরাট সাফল্য। ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০০০ সালের পর ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত ও মৃত্যুর হার অপরিবর্তিত থাকলে এ সময়ের মধ্যে ম্যালেরিয়ায় আরও ৬২ লাখ লোক মারা যেত। এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, আমরা এই আগের মৃত্যু মোকাবেলা করতে পারি। তবে এখনও পাঁচ বছরের নিচের বয়সের শিশুরা অধিক হারে ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছে। কেননা দেখা যাচ্ছে ম্যালেরিয়ায় আক্রান্তদের বেশির ভাগই শিশু।

বুরকিনা ফাসোর প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীর মুক্তির দাবি জাতিসংঘের

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ বুরকিনা ফাসোর অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীকে আটক রাখার কঠোর নিন্দা জানিয়ে তাদেরকে ছেড়ে দেয়ার দাবি জানিয়েছে। বুধবার প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত সদস্যরা তাদের আটক করে। খবর এএফপির

সর্বসম্মতিক্রমে দেয়া এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের ১৫ সদস্যবিশিষ্ট নিরাপত্তা পরিষদ যেকোন ধরনের সহিংসতা থেকে বিরত থাকতে বুরকিনা ফাসোর সকল পক্ষের প্রতি আহবান জানিয়েছে।

বুরকিনা ফাসোর ক্ষমতাচ্যুত সাবেক নেতা ব্লেইজ কমপাওরের প্রতি অনুগত প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তা কর্মীরা প্রেসিডেন্ট ভবনে মন্ত্রিসভার বৈঠক চলাকালে প্রেসিডেন্ট মাইকেল কাফান্দো, প্রধানমন্ত্রী আইজ্যাক জিদা ও দুই মন্ত্রীকে আটক করে।