২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চিলিতে ৮ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্পে নিহত ৫

চিলির উপকূলীয় এলাকার মধ্যাঞ্চলে বুধবার ৮ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে। এতে পাঁচজন নিহত ও ১০ লাখ লোককে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে আরও একজন। চিলির স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ৫৪ মিনিটে ভূমিকম্পটি অনুভূত হয়। ভূমিকম্পের পর চিলি, পেরু, হাওয়াই ও ক্যালিফোর্নিয়া এবং নিউজিল্যান্ডের অংশবিশেষে সুনামির সতর্কতা জারি করা হয়। খবর আল-জাজিরা, এএফপি ও টেলিগ্রাফের।

ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল রাজধানী সান্তিয়াগো থেকে ২৩২ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে উপকূলীয় শহর ভ্যালপারাইসো থেকে ১০৫ কিলোমিটার উত্তরে সাগরের তলদেশের ১০ কিলোমিটার গভীরে। যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা (ইউএসজিএস) প্রাথমিকভাবে ভূমিকম্পটির মাত্রা ৭ দশমিক ৯ বলে জানিয়েছিল পরে সংশোধন করে ৮ দশমিক ৩ বলে জানায়। ভূমিকম্পের পর সান্তিয়াগোর লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়ে এবং ভবনগুলো প্রবলভাবে ঝাঁকুনি খায়। সুনামির আশঙ্কায় চিলি সরকার উপকূলীয় এলাকা থেকে লোকজনকে সরে যাবার আহ্বান জানিয়েছে। সান্তিয়াগো থেকে ২১০ কিলোমিটার দূরের ইল্লাপেল শহর থেকে ভূমিকম্পটির উপকেন্দ্র মাত্র ৪৬ কিলোমিটার দূরে। রেডিওর এক সম্প্রচারে শহরটির মেয়র জানিয়েছেন, এখানে দেয়াল চাপা পড়ে ২৬ বছর বয়সী এক নারী নিহত ও অপর ১৫ জন আহত হয়েছেন। ভূমিকম্পে শহরটির বেশ কয়েকটি বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এবং লোকজন তাদের বাড়িঘর ছেড়ে রাস্তায় অবস্থান নিয়েছেন।

স্মার্টওয়াচ নিরাপদ নয়

স্মার্টওয়াচ থেকে ব্যবহৃত তথ্য খুব সহজেই হ্যাক করতে পারে হ্যাকাররা। গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, একটি রেগুলার কিবোর্ডের চেয়ে খুব সহজেই স্মার্টওয়াচে ব্যবহৃত তথ্যাদির যাবতীয় নথি পাওয়া সম্ভব। এ্যাক্সিলোমিটার ও গ্যারিস্কোপ সিগনাল স্মার্টওয়াচের মাইক্রো মোশনগুলো এ্যাক্সেস করতে পারে এবং সেগুলো থেকে ইংরেজী হরফে সব নথি হ্যাকারের কাছে পৌঁছে যায়। - জি নিউজ

পাখিরাও প্রেমে পড়ে

জার্মানির ম্যাক্স প্ল্যাঙ্ক ইনস্টিটিউট অব অর্নিথোলজির গবেষকদের দাবি, নিজের পছন্দের সঙ্গী পেলে পাখিরাও সুখে ‘সংসার’ করে, সুস্থ থাকে এবং বেশিদিন বাঁচে। ‘জেব্রা ফিঞ্চ’ প্রজাতির পাখিদের নিয়ে করা গবেষণায় গবেষকরা দুই দলে ভাগ করে পাখিদের ‘স্পিড ডেটিং’এ পাঠায়। প্রথম দলকে পছন্দমতো সঙ্গী বেছে নেয়ার সুযোগ দেয়া হয় আর দ্বিতীয় দলকে গবেষকদের ইচ্ছামতো। প্রথম দলের তুলনায় দ্বিতীয় দলের জোড়াগুলোর মধ্যে যোগাযোগ, সঙ্গম ও দায়িত্ববোধ লক্ষণীয়ভাবে কম ছিল। -সংবাদ প্রতিদিন