২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গ্রাহকদের তথ্য সংরক্ষণে রবি নিয়ে এলো ক্লাউড সেবা

হ্যান্ডসেট হারানো, চুরি বা নষ্ট হওয়ার কারণে তথ্য হারিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা ঠেকাতে ‘রবি ক্লাউড’ নামে একটি অনলাইন তথ্য সংরক্ষণ সেবা চালু করেছে রবি আজিয়াটা লিমিটেড। এ সেবার মাধ্যমে গ্রাহকরা ছবি, গান, ভিডিও এবং গুরুত্বপূর্ণ ফাইল সংরক্ষণ করতে পারবেন। দেশে রবিই প্রথম সার্বিক তথ্য সংরক্ষণের এমন ব্যবস্থা চালু করল। ফলে মোবাইল ফোনের তথ্য সংরক্ষণের জন্য প্রতিদিনের ভোগান্তি থেকে রক্ষা পেল গ্রাহকরা। রবি’র ক্লাউড সেবার মাধ্যমে গ্রাহকরা যে কোন সময় যে কোন স্থান থেকে ১৫ গিগাবাইট পর্যন্ত ছবি, ভিডিও, গান, ফাইল, প্রেজেনটেশন ইত্যাদি সংরক্ষণ করতে পারবেন। রবি ক্লাউড একটি ব্যক্তিগত ফাইল আর্কাইভ যা নিরাপদ ক্লাউড সেবা দেবে। হ্যান্ডসেট হারানোর পাশাপাশি তথ্য হারানোর আশঙ্কা পুরোপুরি দূর করবে এই সেবাটি।

গ্রাহকরা রবি ক্লাউড থেকে সরাসরি লিঙ্কের মাধ্যমে যে কোন ফাইল অন্যের সঙ্গে শেয়ার করতে পারবেন। যে কোন সময় যে কোন স্থান থেকে সেই আপলোড ফাইলগুলো ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহকরা। সব ধরনের ডিভাইস (স্মার্টফোন, ল্যাপটপ, ট্যাবলেট ইত্যাদি) থেকে ক্লাউডে রাখা ফাইলগুলোতে প্রবেশ করা যাবে। প্রমোশনটি চলাকালীন (অক্টোবর ১১ পর্যন্ত) প্লাটিনাম এইস ও প্লাটিনাম গ্রাহকরা রবি ক্লাউড সেবার মাধ্যমে ১৫ গিগাবাইট ফ্রি স্পেস ব্যবহার করতে পারবেন। ডায়মন্ড গ্রাহকরা ১২ গিগাবাইট এবং নতুন গ্রাহকসহ ধন্যবাদ কর্মসূচীর আওতায় থাকা বাকি গ্রাহকরা ১০ গিগাবাইট ফ্রি স্পেস ব্যবহার করতে পারবেন।

গ্রাহকরা ঈঅঞ লিখে ১২১৩ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়ে ধন্যবাদ কর্মসূচীর আওতায় তার অবস্থান জানতে পারবেন। রবি ক্লাউড সার্ভিসটি এখন িি.ি. সাইটে পাওয়া যাবে। ‘রবি ক্লাউড’ এ্যাপটিও গুগল প্লে স্টোরে পাওয়া যাচ্ছে এবং যে কোন এ্যানড্রয়েড ফোনে তা ব্যবহার করা যাবে।-বিজ্ঞপ্তি

বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত অবকাঠামো মেরামতে ৬৫ কোটি টাকা বরাদ্দ

সংসদ রিপোর্টার ॥ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত বেড়িবাঁধসহ অবকাঠামো মেরামতের জন্য পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় থেকে পানি উন্নয়ন বোর্ডকে (পাউবো) পৌনে ৬৫ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। সেক্ষেত্রে মন্ত্রণালয় ৩৩টি জেলাকে সর্বোচ্চ ক্ষতিগ্রস্ত হিসেবে চিহ্নিত করেছে। অবকাঠামোগত মেরামত কাজ দ্রুত শেষ করতে ৫টি জরুরী আপদকালীন কাজ নিরূপণ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত পানি সম্পদ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এ তথ্য জানানো হয়েছে। কমিটির সভাপতি রমেশ চন্দ্র সেনের সভাপতিত্বে বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে কমিটির সদস্য পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ নজরুল ইসলাম, এ কে এম ফজলুল হক, মোঃ ফরিদুল হক খান, রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক ও সেলিনা জাহান লিটা এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক সূত্র জানায়, মন্ত্রণালয়ের হিসাব মতে চলতি বর্ষা মৌসুমে ঘূর্ণিঝড় কোমেনের প্রভাব ও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে কপোতাক্ষ নদের প্লাবনের কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, সাতক্ষীরা ও খুলনাসহ ৩৩টি জেলায় বন্যা দেখা দেয়। যে কারণে পাউবোর অবকাঠামোতে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। বিভিন্ন জেলা থেকে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে ক্ষতিগ্রস্ত অবকাঠামো মেরামতের জন্য পাউবোর ৩৩টি বিভাগে মোট ৬৪ কোটি ৭০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।