২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সেরেনার প্রশংসায় ওজনিয়াকি

সেরেনার প্রশংসায় ওজনিয়াকি

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অসামান্য কীর্তির সামনে দাঁড়িয়ে ছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। প্রথমবারের মতো ‘ক্যালেন্ডার সøাম জয়’ এবং স্টেফি গ্রাফের রেকর্ডে ভাগ বসানোর দারুণ সুযোগ থেকে শেষ পর্যন্ত বঞ্চিত হন তিনি। ইউএস ওপেনের সেমিফাইনালে রবার্টা ভিঞ্চির কাছে অপ্রত্যাশিতভাবে হেরে। বছরের শেষ গ্র্যান্ডসøাম টুর্নামেন্টের সেমিফাইনাল থেকে ছিটকে গেলেও সেরেনার প্রশংসায় পঞ্চমুখ ডেনমার্কের টেনিস তারকা ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। কারণ টেনিস কোর্টে প্রতিপক্ষ হলেও কোর্টের বাইরে যে তারা একে অন্যের খুব কাছের বান্ধবী! তাই সেরেনা উইলিয়ামসের যোগ্যতা সম্পর্কে বেশ ভালই ধারণা রাখেন ড্যানিশ টেনিস তারকা।

এ বিষয়ে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান তারকা ক্যারোলিন ওজনিয়াকি বলেন, ‘চলতি বছরের প্রথম তিন গ্র্যান্ডসøামের সবই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সেরেনা। আমি মনে করি এটাই তার শ্রেষ্ঠত্ব প্রমাণের জন্য যথেষ্ট।’ আমেরিকান তারকার বর্তমান বয়স তেত্রিশ। আগামী সপ্তাহেই চৌত্রিশে পা রাখবেন তিনি। কিন্তু নিজেকে বয়সের ফ্রেমে বেঁধে রাখতে নারাজ সেরেনা। গত উইম্বল্ডন জিতেই ক্যারিয়ারে দ্বিতীয়বারের মতো ‘সেরেনা সøাম’ জয়ের রেকর্ড গড়েছেন তিনি। বর্তমানে তার গ্র্যান্ডসøাম সংখ্যা ২১। ইউএস ওপেন জিততে পারলেই স্টেফি গ্রাফের ২২ গ্র্যান্ডসøামের রেকর্ডে ভাগ বসাতে পারতেন তিনি। কিন্তু সেমিফাইনালে পৌঁছেও শেষ পর্যন্ত হেরে যান সেরেনা। তবে ওজনিয়াকির বিশ্বাস স্টেফি গ্রাফের এই রেকর্ডকে দ্রুতই ছাড়িয়ে যাবেন আমেরিকান টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি। এ বিষয়ে ২৫ বছর বয়সী ওজনিয়াকি বলেন, ‘স্টেফি গ্রাফকে ছাড়িয়ে যাওয়াটা সহজ বিষয় নয়। কিন্তু আমি এটা নিশ্চিত করেই বলতে পারি যে সেরেনা উইলিয়ামস একদিন তা করে দেখাবেই।’

গত বছর ইউএস ওপেনের ফাইনালে ক্যারোলিন ওজনিয়াকিকে হারিয়েই চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন সেরেনা উইলিয়ামস। টেনিস কোর্টে এরপর থেকে শুধুই সেরেনার রাজত্ব দেখে বিশ্ব। অস্ট্রেলিয়ান ওপেন, ফ্রেঞ্চ ওপেন কিংবা উইম্বল্ডন টানা চার মেজর শিরোপা জয়ের অবিস্মরণীয় কীর্তি গড়েন তিনি। ইউএস ওপেনে না হারলে সেরেনা নিজেকে নিয়ে যেতেন ইতিহাসের সোনালি পাতায়। মহিলা এককে যেমন সেরেনা উইলিয়ামস তেমনি পুরুষ এককে রজার ফেদেরার। দুজনই টেনিস কোর্টে এখনও দুর্দো-প্রতাপে খেলে যাচ্ছেন। এই দুজনেরই বয়স প্রায় একই। সুইস কিংবদন্তি ফেদেরারের বর্তমান বয়স ৩৪। আর আগামী সপ্তাহেই এই কোটায় পা রাখতে যাচ্ছেন সেরেনা। তবে টেনিস কোর্টে বেশিদিন খেলতে পারাটাকে ইতিবাচকভাবেই দেখছেন র‌্যাঙ্কিংয়ের ষষ্ঠ স্থানে থাকা ওজনিয়াকি। তবে এ জন্য ফিটনেসকে খুবই গুরুত্ব দিতে হবে বলে মনে করছেন তিনি। এ বিষয়ে তার অভিমত, ‘আপনি যদি লক্ষ্য করেন যে বর্তমানে টেনিস কোর্টে বেশি বয়সী খেলোয়াড়রাও খেলছেন। আমি মনে করি এ জন্য তারা তাদের শরীরকে ফিট রাখার জন্য ভাল কোন উপায় খোঁজে পেয়েছেন। যা খুবই ভাল বিষয়।’

সেরেনা-ফেদেরার চোটকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে কোর্টে রাজত্ব করলেও গত মৌসুম ধরেই চোটে কাবু ওজনিয়াকি। যে কারণে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। তবে জাপান এবং চায়না ওপেনে স্বরূপে ফেরার ইঙ্গিত দিয়ে দিলেন ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। কেননা ডব্লিউটিএ ফাইনালস খেলতে হলে যে এখানে ভাল খেলার বিকল্প নেই তার।