২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আহমেদ সেই স্কুলে আর যাবে না

অনলাইন ডেস্ক ॥ স্কুল কর্তৃপক্ষের আগ্রহ থাকলেও আহমেদ মোহামেদের পরিবার সাফ জানিয়ে দিয়েছে, ম্যাকআর্থার স্কুলে ফিরছে না আহমেদ। তার জন্য নতুন স্কুল খোঁজা হচ্ছে।

১৪ বছর বয়সী আহমেদ টেক্সাস অঙ্গরাজ্যের আর্ভিং শহরের ম্যাকআর্থার হাইস্কুল স্কুলটির নবম গ্রেডের ছাত্র ছিল, ঘড়িকাণ্ডে গ্রেপ্তার হওয়ার পর যাকে নিয়ে আলোচনা এখন বিশ্বজুড়ে।

গত সোমবার নিজের তৈরি করা একটি ঘড়ি নিয়ে স্কুলে এলে স্কুল কর্তৃপক্ষ ঘড়িকে বোমা মনে করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ আহমেদকে জেলে নিয়ে যায়, পরে তাকে বাবা-মা’র জিম্মায় ছেড়ে দেওয়া হয়।

শিক্ষককে খুশি করার জন্য আহমেদ নিজের তৈরি ওই ঘড়ি নিয়ে এসেছিল।

পরদিন স্কুলটির একজন মুখপাত্র আহমেদকে ‘অবশ্যই স্বাগত’ জানানো হবে জানিয়ে এবিসি নিউজকে বলেছিলেন, “তার মানসম্মত শিক্ষা অব্যাহত রাখার বিষয়ে আমরা আত্মবিশ্বাসী।”

এর প্রতিক্রিয়ায় ‘আহমেদের ফিরে যাওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই’ বলে জানায় তার বাবা এলহাসান মোহামেদ।

তিনি বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের একটি সংবাদ সংস্থাকে বলেন, “ম্যাকআর্থারে তাকে আর পাঠাব না। তাকে কোথায় ভর্তি করা হবে, সে বিষয়ে আমরা পরে সিদ্ধান্ত নেব।”

গত সপ্তাহে আহমেদকে গ্রেপ্তারের পর যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বজুড়ে প্রচণ্ড প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। ফেইসবুক, টুইটারসহ সামাজিক মাধ্যমগুলোতে ব্যবহারকারীরা আহমেদের সমর্থনে ‘আই স্ট্যান্ড উইথ আহমেদ’ ও ‘ইঞ্জিনিয়ার্স ফর আহমেদ’ হ্যাশট্যাগ দিয়ে লাখ লাখ ক্ষুদে বার্তা ছাড়ে।

অনেক বিখ্যাত ব্যক্তিও আহমেদের প্রতি তাদের সমর্থন ব্যক্ত করে সামাজিক মাধ্যমে বিবৃতি দেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা বানানো ঘড়িসহ আহমেদকে হোয়াইট হাউজে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। দেশটির সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন ‘অনুসন্ধিৎসু থাকতে ও আরও জিনিস বানাতে’ আহমেদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।