২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সংসদ ভবনের সামনে থেকে ১৫ গরু বোঝাই ট্রাক ছিনতাই

স্টাফ রিপোর্টার ॥ কোরবানির পশুর হাটের নিরাপত্তায় পুলিশী নজরদারির মধ্যেই রাজধানীতে বেপারীদের কুপিয়ে গরুবোঝাই একটি ট্রাক ছিনতাই করে দুর্বৃত্তরা। গভীর রাতে খোদ জাতীয় সংসদ ভবনের সামনের সড়কে ঝিনাইদহের বেপারীদের কুপিয়ে গরুভর্তি একটি ট্রাক ছিনতাই করেছে তারা। ছিনতাইকারীরা চার বেপারীকে কুপিয়ে ও মারধর করে ১৫ গরুবোঝাই ট্রাক ছিনিয়ে নেয়। পরে আশুলিয়ায় একটি পিকআপ ভ্যান থেকে মাসুম (২৪), সুজন (২৬), হাসু মিয়া (৪৫) ও তানজিমুল (২৮) নামে চার বেপারীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে পুলিশ। আহত গরু বেপারীরা জানান, ঝিনাইদহ থেকে ১৬ গরু নিয়ে ঢাকায় আসার পর তাদের একটি গরু অসুস্থ হয়ে পড়ে। ট্রাক ড্রাইভার সংসদ ভবন এলাকায় গাড়ি থামায়। এ সময় একটি পিকআপ ভ্যান তাদের গরু বোঝাই ট্রাকটির গতিরোধ করে। পিকআপ ভ্যান থেকে কয়েক যুবক এসে তাদের মারধর করে গরুবোঝাই ট্রাক ও হেলপারসহ ট্রাকটি ছিনিয়ে নেয়। বেপারীরা জানান, পরে তাদের পিকআপে করে রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ঘোরাতে থাকে ও বিভিন্নভাবে শারীরিক নির্যাতন চালায়। একপর্যায়ে আশুলিয়ার দিকে নিয়ে যায়। ওই এলাকায় পুলিশের গাড়ি দেখতে পেয়ে তাদের নামিয়ে দিয়ে তারা পালিয়ে যায়। পুলিশ পরে বেপারীদের মেরুল বাড্ডার গরুর হাটে গিয়ে হাট কমিটির হাতে তুলে দেয় শনিবার সকালে হাট কমিটি তাদের ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করে। শেরে বাংলা নগর থানার এসআই মোঃ মনিরুজ্জামান জানান, সংসদ ভবন এলাকা থেকে গরুবোঝাই ট্রাক ছিনতাইয়ের খবর পেয়ে তারা সেখানে গিয়ে ট্রাকটি পাননি। গরু ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম জানান, তাদের আনা ১৫ গরুবোঝাই একটি ট্রাক ছিনতাই হয়েছে। ব্যবসায়ীদের উদ্ধৃত করে এসআই মনিরুজ্জামান বলেন, ঝিনাইদহ থেকে ওই বেপারীরা দুটি ট্রাকে গরু নিয়ে আফতাব নগর পশুর হাটে যাচ্ছিলেন। সারাপথে যে ট্রাকটি পেছনে ছিল সংসদ ভবন এলাকায় তা সামনের ট্রাককে পাশ কাটিয়ে আফতাব নগর হাটে পৌঁছানোর পর দেখে যে অন্য ট্রাকটি হাটে পৌঁছেনি। ট্রাকের চালক, হেলপার এবং ওই ট্রাকে থাকা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এরপর তারা মৌখিকভাবে পুলিশকে গরু ছিনতাইয়ের ঘটনা জানালে পুলিশ তৎপরতা শুরু করে।

গরু বেপারীরা জানান, এই ছিনতাইয়ের সঙ্গে ট্রাকচালক সুজন জড়িত থাকতে পারে। কারণ গাবতলী পার হওয়ার পর থেকেই ওই ট্রাকচালক মোবাইল ফোনে বারবার কথা বলছিল। মানিক মিয়া এভিনিউয়ের কাছাকাছি পৌঁছালে চালক হঠাৎ করেই ট্রাকটি থামান। এরপর ছিনতাইয়ের এ ঘটনা ঘটে। শেরে বাংলা নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জিজি বিশ্বাস জানান, ছিনতাই হওয়া গরুগুলোর মালিক নুরুল ইসলাম ও ট্রাকচালক সুজন ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে বলে অভিযোগ করেছেন। তার অভিযোগের প্রেক্ষিতে বাড্ডা থেকে ওই ট্রাকচালক সুজনকে আটক করা হয়েছে। চালককে থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।