১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

খুলনায় বাবা-মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা

  • অন্যত্র দুই খুন ও তিন লাশ উদ্ধার

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ খুলনায় বাবা ও মেয়েকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে। এ ছাড়া কুড়িগ্রামে এক ব্যক্তকে পিটিয়ে, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে এবং ঝিনাইদহে এক ব্যক্তি ও দাউদকান্দিতে যুবক, জয়পুরহাটে ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। খবর স্টাফ রিপোর্টার ও নিজস্ব সংবাদদাতাদের।

খুলনা ॥ মহানগরীর লবণচরা থানাধীন বুড়ো মৌলভীর দরগা এলাকায় বাবা ও মেয়েকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন ইলিয়াস হোসেন চৌধুরী (৭০) ও তার মেয়ে এক্সিম ব্যাংকের ক্যাশ কর্মকর্তা পারভীন সুলতানা (২৪)। তাদের শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ ধারণা করছে। তবে হত্যার কারণ সম্পর্কে পুলিশ সঠিক কোন তথ্য দিতে পারেনি। এদিকে এই জোড়া হত্যার পর ঘটনাস্থল ও আশপাশের এলাকার মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। জানা গেছে, নিহত ইলিয়াস হোসেন চৌধুরী তিন বছর আগে লবণচরা থানাধীন মোহাম্মদনগর সংলগ্ন বুড়ো মৌলবীর দরগা এলাকায় টিনশেডের বাড়ি তৈরি করেন। ওই বাড়িতে তিনি এবং তার মেয়ে পারভীন সুলতানা ছিলেন। শুক্রবার রাতে কতিপয় দুর্বৃত্ত তাদের ঘরে ঢোকে। এসময় চিৎকার করলে তারা গৃহকর্তা ইলিয়াস ও তার মেয়ে পারভীনকে শ্বাসরোধে হত্যা করে। দুর্বৃত্তরা ঘরের মালামাল লুট ও আসবাবপত্র তছনছ করে চলে যায়। পরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।

লবণচরা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বলেন, লাশ দুটির গলায় শ্বাসরোধের চিহ্ন ছিল। দুর্বৃত্তরা ডাকাতি করতে এসে চিনে ফেলায় তাদের হত্যা করে থাকতে পারে বলে তার ধারণা। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের নগর বিশেষ শাখার অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার শেখ মনিরুজ্জামান মিঠু জানান, রাতেই পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

কুড়িগ্রাম ॥ জমি নিয়ে বিরোধের জেরে একজনকে পিটিয়ে হত্যা করেছে ভাই ও ভাতিজারা। ঘটনাটি ঘটেছে নাগেশ্বরী উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের গোসাইবাড়ি শ্রীপুর গ্রামে। এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী বাদী হয়ে থানায় ৬জনকে আসামি করে মামলা করেছে। ঘটনার পরই পালিয়েছে ঘাতকরা। জানা গেছে, নাগেশ্বরী উপজেলার হাসনাবাদ ইউনিয়নের গোসাইবাড়ী শ্রীপুর গ্রামের মৃত বছির উদ্দিনের ছেলে আব্দুস ছালামের সঙ্গে বড় ভাই কাশেম আলীর জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এই বিরোধের জেরে শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাড়িতে বড় ভাই কাশেম তার ছেলে মাহবুব হোসেন ও মিজানুর রহমানের সঙ্গে কথা কাটাকাটি হয়। এর একপর্যায়ে তারা আব্দুস সালামকে লাঠি দিয়ে এলাপাতাড়ি মারধর করলে সে গুরুতর আহত হলে তাকে কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে সে মারা যায়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ॥ কসবায় রিজিয়া আক্তার (৩৮) নামে এক গৃহবধূকে গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে উপজেলার গোপিনাথপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামে স্বামীর ঘর থেকে তার গলাকাটা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। নিহত রিজিয়া আক্তার জগন্নাথপুর গ্রামের শাহ আলমের স্ত্রী। জানা গেছে, শুক্রবার মধ্যরাতের কোন এক সময় দুর্বৃত্তরা রিজিয়ার ঘরে প্রবেশ করে তাকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়। শনিবার সকালে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

ঝিনাইদহ ॥ শৈলকুপায় মেহেদ আলী মালিতা (৩৮) নামে এক ব্যক্তির হাত-পা বাঁধা মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার সকালে শৈলকুপা উপজেলার কাঁচেরকোল গ্রামের ধানক্ষেত থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। মেহেদ আলী মালিতা কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার কৃষ্ণনগর গ্রামের আসালত ম-লের ছেলে।

দাউদকান্দি ॥ ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ইলিয়টগঞ্জ থেকে অজ্ঞাত(৩০) যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে দাউদকান্দি উপজেলার মোবারকপুর মৌজার খাল থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে গৌরীপুর ফাঁড়ি পুলিশ। পুলিশ জানায়, দুপুর ২টার দিকে গলায় সিমেন্টের বস্তা বাঁধা একটি মৃতদেহ দেখে এলাকাবাসী পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা পাঠায়।

জয়পুরহাট ॥ পৌর এলাকার পাচুরচক সড়কের একটি জমি থেকে তরিকুল ইসলাম সাগর(৩২) নামে এক ওষুধ ব্যবসায়ীর লাশ পুলিশ উদ্ধার করেছে। তার গলার পেছনে এবং সামনের দিকে কাটা ছিল ও মুখে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন ছিল। পুলিশ জানায়, জয়পুরহাট শহরের পদ্ম ক্লিনিকের সামনে ওষুধ দোকান মালিক তরিকুল ইসলাম প্রতিদিনের ন্যায় রাত সাড়ে ১০টার দিকে দোকান বন্ধ করে বাড়ির উদ্দেশে রওনা দেয়। পরদিন সকালে পাচুরচক সড়কে একটি পরিত্যক্ত নার্সারির পাশের জমিতে লাশ পাওয়া যায়।