১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মানুষ মানুষের জন্য

  • টাকার অভাবে ওষুধ কিনতে পারছেন না আজিজুল, সাহায্য করুন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ প্রিয় দেশবাসী, ফল বিক্রেতা আজিজুলের (৩৫) চিকিৎসায় সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিন। আজিজুল তিন মাস ধরে কিডনিতে, টিউমার ও লিভারের জটিল সমস্যায় ভুগছেন তিনি ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন। কিন্তু টাকার অভাবে চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী উন্নত চিকিৎসা করাতে পারেননি। ফল বিক্রির আয় দিয়েই চলত তার সংসার। তিনি গত তিন মাস ধরে কোন কাজ করতে পারছেন না। ধার-দেনা করে নিজের চিকিৎসা করাচ্ছেন। প্রতিমাসে তাঁর ছয় হাজার টাকার ওষুধ খেতে হয়। তার এক ছেলে, এক মেয়ে। ছেলের বয়স ৬ বছর। মেয়ের বয়স ১০ বছর। মেয়ে একটি স্কুলে ৪র্থ শ্রেণীতে পড়ে। স্ত্রী হেলেনা বেগম এখন কোন উপায় না দেখে একটি গার্মেন্টসে চাকরি নিয়েছেন। স্ত্রীর আয় দিয়েই কোনমতে চলছে তাদের সংসার। গ্রামের বাড়ি শরীয়তপুর সদর (পালং) থানার গঙ্গানগর মোল্লাকান্দিতে। গ্রামে তার ভিটেবাড়ি ছাড়া আর কিছুই নেই। পিতা হাছান ঢালী জীবিত নেই। আজিজুল বর্তমানে ঢাকার আশুলিয়া থানার শ্রীপুরের হাসান কলোনির দেলোয়ারের বাড়িতে ভাড়া থাকেন। ডাক্তাররা তাকে আরও ছয় মাস ওষুধ খেতে বলেছেন। ছয় মাস ওষুধ খাওয়ার পর অপারেশন লাগবে কিনা তা বলা যাবে। নিয়মিত চিকিৎসা না করালে ক্যান্সারে রূপ নিতে পারে বলে ডাক্তাররা তাকে জানিয়েছেন। এখন তার ওষুধ খাওয়ার মতো কোন টাকা-পয়সা নেই। তাই তিনি তার সুচিকিৎসায় দেশের দানশীল ও বিত্তবানদের কাছে সাহায্যের আবেদন জানিয়েছেন। আজিজুলকে সাহায্য দিতে যোগাযোগ করুন, বিকাশ নম্বর-০১৯৩১৯০৬২০১। অথবা আজিজুল, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিঃ, গণকবাড়ী শাখা, আশুলিয়া, হিসাব নং-১২৫১৩।

ঘোষণা : দৈনিক জনকণ্ঠ ‘মানুষ মানুষের জন্য’ বিভাগে খবর প্রকাশের মাধ্যমে সহৃদয় ব্যক্তিদের সঙ্গে যোগাযোগ ঘটিয়ে দিয়ে থাকে। সাহায্য সরাসরি সাহায্যপ্রার্থীর ব্যাংক এ্যাকাউন্টে জমা দিতে হবে। অথবা সাহায্যপ্রার্থীর দেয়া মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করতে হবে। দৈনিক জনকণ্ঠ এ বিষয়ে কোন দায়ভার গ্রহণ করবে না।